BREAKING NEWS

১৩ ফাল্গুন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দুষ্কৃতী হামলায় চোখে আঘাত, টুর্নামেন্টেই নামলেন না শ্যুটার অনির্বাণ সিংহরায়

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: January 27, 2021 8:59 pm|    Updated: January 27, 2021 9:35 pm

An Images

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: চুঁচুড়া (Chinsurah) থানা থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে আক্রান্ত হলেন রাজ্যস্তরের রাইফেল শ্যুটার (Shooter) অনির্বাণ সিংহরায় ও তার এক কর্মচারী।  খাবার চেয়েও না পাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে একদল দুষ্কৃতী তাঁদের উপরে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। ঘটনায় দুই চোখে মারাত্মক আঘাত পান অনির্বাণ। গুরুতর আহত হন তাঁর হোটেলের ম্যানেজার গোবিন্দ বারিকও। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২ টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে চুঁচুড়ার ঘড়ির মোড়ে। এই ঘটনায় তিন হামলাকারীকে গ্রেপ্তারও করেছে চুঁচুড়া থানার পুলিশ। এই হামলার জেরে বুধবার আসানসোলের (Asansol) রাজ্য শ্যুটিং চ্যাম্পিয়নশিপে অংশই নিতে পারলেন না অনির্বাণ।

এক সময় রাজ্য স্তরে বহু জায়গাতেই রাইফেল শুটিংয়ে নজির গড়েছেন অনির্বাণ। ঘড়ির মোড়ে তাঁদের বহুদিনের পারিবারিক হোটেল রয়েছে, যা বর্তমানে তিনিই চালান। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২ টা নাগাদ হোটেল বন্ধ করার জন্য সব গোছানোর কাজ শুরু করেছিলেন অনির্বাণ ও তাঁর ম্যানেজার গোবিন্দবাবু। চুঁচুড়া গোরস্থান মোড়ের বাসিন্দা আহত অনির্বাণ জানান, তিনি ঠাকুরকে ধূপ দেখাচ্ছিলেন আর তাঁর ম্যানেজার খেতে বসেছিলেন। সেই সময় হঠাৎই সাত-আটজন যুবক বাইকে করে তাঁর দোকানের সামনে এসে দাঁড়ায়। এদের মধ্যে এক যুবক হোটেলে ঢুকে খাবার চায়। কিন্তু খাবার শেষ হয়ে যাওয়ায়, তাদের জানানো হয়, খাবার নেই।

[আরও পড়ুন: সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করে স্কুল খুলল হাওড়ায়! পুলিশ-প্রশাসনের দ্বারস্থ স্থানীয়রা

আর তা শুনেই ক্ষিপ্ত হয়ে অনির্বাণবাবু এবং তাঁর ম্যানেজারের উপর চড়াও হয় ওই দুষ্কৃতীরা। তাঁদের বেধড়ক কিল, চড়, ঘুঁসি মারা হয়। ভাঙচুর করা হয় হোটেলের চেয়ার-টেবিলও। এরপর ক্যাশবাক্স ভেঙে টাকা লুঠ করে পালায় দুষ্কৃতীরা। ওই সময় কয়েকজনের হাতে ছুরি ছিল বলেও অভিযোগ অনির্বাণের। এই ঘটনায় দুই চোখে এতটাই গুরুতর আঘাত পান অনির্বাণ যে, বুধবার আসানসোলের রাজ্য শুটিং চ্যাম্পিয়নশিপে তিনি অংশগ্রহণ করতে পারেননি।

[আরও পড়ুন: গরু পাচার কাণ্ডে বিনয় মিশ্রের ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ীর বাড়িতে CBI হানা, দীর্ঘক্ষণ চলল তল্লাশি]

ডাকাবুকো অনির্বাণ শুধু শুটারই নন, ২০০২ সালে তপোবনের এক অরণ্যে বন্ধুদের উপর নেকড়ে হামলা চালালে, সেই সময় নেকড়েকে মেরে বন্ধুদের বাঁচিয়ে রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে গিয়েছিলেন। সেই অনির্বাণের উপর দুষ্কৃতীদের হামলার ঘটনায় এলাকাবাসীদের মনে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। রাতেই চুঁচুড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করার পর পুলিশ তদন্তে নেমে চুঁচুড়ার খরুয়া বাজার এলাকা থেকে তিন দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তারও করে। বাকিদের খোঁজ চলছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement