BREAKING NEWS

২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দেশের প্রতিনিধিত্ব করি, ধর্মের নয়’, পয়গম্বর বিতর্কের মাঝেই মন্তব্য বক্সার নিখাত জারিনের

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: June 14, 2022 12:58 pm|    Updated: June 14, 2022 4:33 pm

Nikhat Zareen says 'I represent my country, not community' | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পঞ্চম ভারতীয় মহিলা হিসাবে বক্সিংয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তিনি। সেই নিখাত জারিন বলেছেন, তাঁর খেলার পরিবর্তে ধর্মীয় পরিচয় নিয়েই বেশি কথা হয়। তেলেঙ্গানার এই বক্সার বলেছেন, খেলার মাঠে তিনি দেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। কোনও ধর্মের প্রতিনিধি হিসাবে বক্সিং রিংয়ে নামেন না। সেইসঙ্গে তিনি বলেছেন, কীভাবে বড় ম্যাচের চাপ সামলাতে হয়, তা শেখানো দরকার ভারতীয় বক্সারদের। 

একটি অনুষ্ঠানে নিখাত (Nikhat Zareen) বলেন, “আমি একজন খেলোয়াড়। দেশের প্রতিনিধিত্ব করাই আমার কাজ। হিন্দু-মুসলিম বিভেদ নিয়ে মাথা ঘামাই না আমি। দেশের হয়ে পদক জিততেই আমার সবচেয়ে ভাল লাগে।” সেই সঙ্গে তিনি যোগ করেছেন, “আমি দেশের হয়ে খেলতে নামি। কোনও ধর্ম সম্প্রদায়ের হয়ে নয়।” গোঁড়া মুসলিম পরিবার থেকে উঠে এসে বক্সিংয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছেন নিখাত। সেই জন্য খেলার চেয়েও বেশি আলোচনা হয় তাঁর ধর্মীয় পরিচয় নিয়ে। প্রসঙ্গত, হিন্দু-মুসলিম বিতর্কে (Prophet Mohammad Row) এখন উত্তাল ভারত। এহেন পরিস্থিতিতে নিখাতের মন্তব্য বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন অনেকেই।

[আরও পড়ুন: আজ হংকংকে হারালেই মূলপর্বে সুনীলরা, প্রথম একাদশ তৈরি করা নিয়ে চাপে স্টিমাচ]

ওই অনুষ্ঠানে ভারতীয় বক্সারদের মানসিকতা নিয়েও কথা বলেছেন তিনি। নিখাতের মতে, বড় ম্যাচের চাপ সামলাতে দরকার মানসিক শক্তি। সেখানেই পিছিয়ে রয়েছেন ভারতীয় ক্রীড়াবিদরা (Indian Athlete)। কীভাবে এই চাপের মুখে ভাল খেলতে হবে, তার প্রশিক্ষণ প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন নিখাত। তিনি বলেছেন, “ভারতীয় বক্সিংয়ে প্রতিভার অভাব নেই। অন্যদের থেকে আমরা মোটেও পিছিয়ে নেই। কিন্তু সর্বোচ্চ পর্যায়ে কঠিন মানসিকতার প্রয়োজন। সেখানেই উন্নতি করতে হবে।” সেই সঙ্গে তিনি বলেন, “দরকার হলে চাপ সামলানোর প্রশিক্ষণ দিতে হবে।”

টোকিও অলিম্পিকে (Tokyo Olympic) অংশগ্রহণের সময় খবরের শিরোনামে এসেছিলেন নিখাত। কিংবদন্তি বক্সার মেরি কমের (Mary Kom) বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে নিখাত দাবি করেছিলেন, সৎভাবে ট্রায়াল নেওয়া হোক। সেই ম্যাচে ৯-১ ফলে জিতে টোকিও অলিম্পিকে যাওয়ার ছাড়পত্র পেয়েছিলেন মেরি। ম্যাচের পরে মেরির প্রতি সৌজন্য দেখিয়ে জড়িয়ে ধরতে গিয়েছিলেন নিখাত, কিন্তু পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মেরি পাত্তাই দেননি নিখাতকে। সেই প্রসঙ্গ উঠতেই নিখাত বলেছেন, “ওই সময়ে একটু খারাপ লেগেছিল ঠিকই। কিন্তু উনি আমার রোল মডেল। তাই ওই বিষয় নিয়ে আর মাথা ঘামাইনি।”

[আরও পড়ুন: পিছিয়ে ভারত, আজ হারলেই সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকার

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে