২  ভাদ্র  ১৪২৯  শুক্রবার ১৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভিসা বিতর্কে জকোভিচের পাশে সার্বিয়া, টেনিস তারকা দেখা করলেন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে

Published by: Krishanu Mazumder |    Posted: February 3, 2022 8:18 pm|    Updated: February 3, 2022 8:29 pm

Novak Djokovic meets Serbian president Aleksandar | Sangbad Pratidin
দীপক পাত্র: সার্বিয়ান প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার ভুসিকের (Aleksandar Vucic) সাথে দেখা করলেন নোভাক জকোভিচ (Novak Djokovic)। সেই সঙ্গে পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানান সার্বিয়ান তারকা। আসলে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ১১ দিনের নাটকে পুরোপুরি সার্বিয়ান টেনিস তারকার পাশে ছিলেন আলেকজান্ডার ভুসিক। তাই কৃতজ্ঞতা জানাতে ভুললেন না নোভাক জকোভিচ। 
জকোভিচের টিকাকরণ নিয়ে ১১ দিন ধরে নাটক চলেছিল অস্ট্রেলিয়ায়। শেষমেশ অস্ট্রেলিয়ান ওপেন (Australian Open) না খেলেই ফিরে আসতে হয় জকোভিচকে। তাঁর ভিসা বাতিল করাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে বর্ণনা করছেন জোকার। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে একের পর এক ঘটনা তুলে ধরে নোভাক বলেছেন, ঘটনাটা সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত। “আপনার সাথে দেখা করার পিছনে একটাই কারণ ছিল, সার্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে যেভাবে আপনি আমাকে সমর্থন জানিয়েছেন তাতে আপনাকে ধন্যবাদ না জানালে অন্যায় হত। বড় বিষয় হল, আপনি শুধু প্রেসিডেন্ট হিসেবে নয়, একজন সার্বিয়ান নাগরিক হয়ে আপনি আমাকে সমর্থন জানাতে এগিয়ে এসেছিলেন।” অস্ট্রেলিয়ার বিমান বন্দরে তাঁকে দীর্ঘদিন আটক করা হয়েছিল।
জকোভিচ জানিয়ে দিলেন, আটক থাকা অবস্থায় তিনি কখনও একাকীত্ব অনুভব করেননি। “আটক থাকার সময় আমি একা ছিলাম ঠিকই, তবে একাকীত্ব অনুভব করিনি। সেই সময় অনেক সমস্যা ও চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছিল ঠিকই। প্রাথমিকভাবে আমার পরিবার, সমস্ত ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি, সমগ্র সার্বিয়ান নাগরিক, তাছাড়া বিশ্ব জুড়ে ভাল উদ্দেশে্যর প্রচুর জনগণের কাছ থেকে সমর্থন পেয়েছি।” বলেন জকোভিচ। 
 
স্বৈরাচারী আলেকজান্ডার ভুসিকের সাথে জকোভিচের সাক্ষাতকে দেশের অনেকে খোলা মনে মেনে নিতে পারছেন না। দেশবাসীর কাছে জকোভিচ হলেন একজন আইকন, নায়ক হিসেবে বিবেচিত হন। এপ্রিলে নির্বাচন। তাই অনেকে মনে করছেন ভুসিক নির্বাচনকে সামনে রেখে জকোভিচের সাথে দেখা করার মতলব এঁটেছেন। পশ্চিমি সংবাদ মাধ্যম ইতিমধ্যে জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ায় ঢোকার জন্য একটা জাল কোভিড
টিকাকরণের সার্টিফিকেট জমা দিয়েছিলেন নোভাক। যেহেতু তাঁর কোভিড হয়েছিল তাই আলাদা করে আর টিকা নেওয়ার প্রয়োজন ছিল না। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া সরকার নোভাকের এই তত্ত্ব মানতে পারেনি। তাই তারা নোভাকের ভিসা বাতিল করে দেয়।
সেই সঙ্গে নোভাককে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, অস্ট্রেলিয়া ছেড়ে চলে যেতে। জকোভিচের প্রতিদ্বন্দ্বী রাফায়েল নাদাল এবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। আসন্ন ফরাসি ও উইম্বলডনে রাফায়েল নাদাল ও রজার ফেডেরারকে পরাজিত করবেন নোভাক–এমনই মনে করছেন আলেকজান্ডার ভুসিক। তবে এই দু’টি গ্র‌্যান্ড স্লামেও নোভাক খেলতে পারবেন কিনা তা নিয়ে সন্দেহ তুঙ্গে। কারণ এই দু’টি গ্র‌্যান্ড স্লামের সংগঠকরা জানিয়ে দিয়েছে, টীকা না নিলে জকোভিচকে সেই দেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে