২৯ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৪ ঘণ্টা ৫০ মিনিটের টানটান লড়াইয়ের পর অবশেষে এল জয়। রাশিয়ান প্রতিপক্ষ দানিল মেদভেদেভকে ৩-২ সেটে হারিয়ে, চতুর্থবারের মতো ইউএস ওপেন ঝুলিতে পুরলেন ‘চ্যাম্পিয়ন অব চ্যাম্পিয়ন্স’ রাফাল নাদাল। ১৯ তম গ্ল্যান্ড স্ল্যাম খেতাব জিতে পৌঁছে গেলেন রজার ফেডারারের পুরুষদের গ্ল্যান্ড স্ল্যাম জয়ের সর্বকালীন রেকর্ড ২০-র ঠিক পিছনে।

[আরও পড়ুন: ইউএস ওপেনের ফাইনালে হার, গ্র্যান্ড স্ল্যামের রেকর্ড অধরা সেরেনার]

২০১০, ২০১৩ ও ২০১৭ সালের পর ২০১৯। ৩৩ বছর বয়সে দাঁড়িয়েও রবিবার দুর্ধষভাবে শুরু করেছিলেন জীবনের পাঁচ নম্বর ইউএস ওপেন ও ২৭ তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনাল। প্রথম দুটি সেট ৭-৫ ও ৬-৩ স্কোরে জিতে পুরো খেলাটাই যেন নিজের কোর্ট নিয়ে চলে এসেছিলেন। নাদালের নামে স্লোগান দিয়ে নিজেদের উত্তেজিত করার চেষ্টা করলেও দর্শকরা হতাশ হয়ে পড়েছিলেন একপেশে ম্যাচ দেখার আশঙ্কায়।

কিন্তু, দুটি সেটে হেরে পিছিয়ে যাওয়ার পরেই আচমকা যেন জ্বলে উঠলেন রাশিয়ান দানিল মেদভেদেভ। আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামের দর্শকের পাশাপাশি বিশ্বের মোট ৭ লক্ষ ৩৭ হাজার ৮৭২ জনের চোখের সামনে ক্লে কোর্টের বাদশাকে চ্যালেঞ্জ জানালেন। ২৩ বছর বয়সে জীবনের প্রথম গ্রান্ড স্ল্যাম ফাইনাল খেলতে নেমে ভয়কে যেন জয় করতে শিখলেন! দুর্দান্তভাবে লড়াইয়ে ফিরে পরের দুটি সেট ৭-৫ ও ৬-৪ স্কোরে জিতে জমিয়ে তুললেন ফাইনালটা।

[আরও পড়ুন: কিশোরী সাঁতারুকে যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত কোচের ৬ দিনের পুলিশ হেফাজত]

যদিও পাঁচ সেটের টানটান থ্রিলারের পর শিরোপা উঠল সেই নাদালেরই হাতে। প্রথম থেকে দুর্দান্ত লড়াই করলেও শেষ সেটে নাদালের অভিজ্ঞতা আর অসাধারণ সার্ভিসের কাছে হার মানতে হল রাশিয়ান মেদভেদেভকে। আর ৬-৪ স্কোরে সেট জিতে চ্যাম্পিয়ন হলেন নাদাল। ১৯৭০ সালে কেন রোজওয়েল ৩৫ বছর বয়সে ইউএস ওপেন জিতে ইতিহাস তৈরি করেছিলেন। এবার ৩৩ বছর বয়সে নিজের থেকে ১০ বছরের ছোট দানিলকে হারিয়ে ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিযোগিতা জিতলেন নাদাল। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং