১ মাঘ  ১৪২৫  বুধবার ১৬ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

তনুময় ঘোষাল: আন্তর্জাতিক পর্বতারোহণ দিবসে নিজের শহরে হেনস্তার মুখে পড়লেন এভারেস্টজয়ী পর্বতারোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্ত। কলকাতা বিমানবন্দরে পাসপোর্ট আটকে তাঁকে দীর্ঘক্ষণ দাঁড় করিয়ে রাখলেন শুল্ক দপ্তরের এক কর্মী। ব্যাগ খুলে চলল তল্লাশি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘটনার কথা নিজেই জানিয়েছেন সত্যরূপ। তাঁর আক্ষেপ, ‘আমার কাছে পাহাড়ে যাওয়ারই টাকা নেই! সোনা-রূপো আর কী করে আনব?’ তবে শুল্ক দপ্তরের কর্তব্যরত কর্মীটি অবশ্য তল্লাশির জন্য দুঃখপ্রকাশও করেছেন বলে ‘সংবাদ প্রতিদিন ডট ইন’-কে জানিয়েছেন সপ্তশৃঙ্গ জয়ী পর্বতারোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্ত।

[ ষষ্ঠ আগ্নেয়গিরির চূড়ায় সত্যরূপ, বিশ্বরেকর্ডের দোরগোড়ায় পর্বতারোহী]

সাতটি মহাদেশের সাতটি সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয়। তাঁর কৃতিত্বে গৌরব বেড়েছে বাঙালির। তবে এখানেই থেমে থাকতে রাজি নন সত্যরূপ সিদ্ধান্ত। সাতটি মহাদেশের সাতটি আগ্নেগিরির চূড়োয় ওঠার লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছেন তিনি। মাত্র পঁয়ত্রিশ বছর বয়সে  সাতটি মহাদেশের সাতটি সর্বোচ্চ শৃঙ্গ ও সাতটি আগ্নেয়গিরি জয়ের কৃতিত্ব বিশ্বের আর কোনও পর্বতারোহীর নেই। দিন কয়েক আগে ষষ্ঠ আগ্নেয়গিরি জয় করেছেন সত্যরূপ। গত বুধবার মেক্সিকোর পিকো দে ওরিজাবা আগ্নেয়গিরির শীর্ষে উঠেছেন এই বাঙালি পর্বতারোহী। এই সক্রিয় আগ্নেয়গিরিটি উত্তর আমেরিকার তৃতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ। আর একটি আগ্নেয়গিরির শীর্ষে উঠতে পারলেই গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম উঠবে বাঙালি পর্বতারোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্তের। চলতি মাসের ২১ তারিখ অ্যান্টার্কটিকায় অবস্থিত মাউন্ট সিডলেয় অভিযানে যাবেন তিনি। কিন্তু, আমরা কবে ক্রিকেটার কিংবা ফুটবলারদের মতো পর্বতোরোহীদেরও সম্মান দিতে শিখব?

ষষ্ঠ আগ্নেয়গিরি জয় করে শহরে ফেরার পথে কলকাতা বিমানবন্দরে পর্বতারোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্তকে রীতিমতো হেনস্তা করলেন শুল্ক দপ্তরের এক কর্মী। পাসপোর্ট আটকে দীর্ঘক্ষণ দাঁড় করিয়ে রাখাই শুধু নয়, তাঁর ব্যাগ খুলে চলল তল্লাশি। ব্যাগ থেকে বের করা হল জাতীয় পতাকাও! ‘সংবাদ প্রতিদিন ডট ইন’-কে সত্যরূপ সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সকালে মেক্সিকো থেকে কলকাতা থেকে পৌঁছান তিনি। বিমানবন্দর থেকে বাইরে আসার সময়ে আরও বেশ কয়েকজনের সঙ্গে সত্যরূপকেও আলাদা লাইনে দাঁড়াতে বলেন শুল্ক দপ্তরের এক কর্মী। বলা হয়, তাঁর ব্যাগের সিকিউরিটি স্ট্র্যাপটি নাকি সন্দেহজনক! নিয়ে নেওয়া হয় পাসপোর্টও। ব্যাগ খুলে চলে তল্লাশি। যথারীতি সত্যরূপ সিদ্ধান্তের ব্যাগে জাতীয় পতাকা ও পর্বতারোহণের সরঞ্জাম ছাড়া আর কিছুই পাওয়া যায়নি। শেষপর্যন্ত তাঁকে বিমানবন্দরের বাইরে যাওয়ার অনুমতি দেন শুল্ক দপ্তরের কর্তব্যরত কর্মী।

মঙ্গলবার সকালে গোটা ঘটনার কথা জানিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন সত্যরূপ সিদ্ধান্ত। ‘সংবাদ প্রতিদিন ডট ইন’-কে সত্যরূপ অবশ্য জানিয়েছেন, পাসপোর্টের ছবি দেখে তাঁকে চিনতে পেরেছিলেন শুল্ক দপ্তরের কর্মী। কর্তব্যের খাতিরে এভাবে তল্লাশির জন্য দুঃখপ্রকাশও করেছেন তিনি। সত্যরূপ জানতে চান, তাঁর জায়গায় যদি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় থাকতেন, তাহলে কি এভাবে তল্লাশি করা হত? শুল্ক দপ্তরের কর্মী বেশ জোরের সঙ্গে বলেন, ‘না’। ঘটনাচক্রে মঙ্গলবার আবার আন্তর্জাতিক পর্বতারোহণ দিবস!

 

 

[ পাতিয়ালায় যোগা চ্যাম্পিয়নশিপে রুপো ঘরে তুলল বাংলার রীতম]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং