BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই পাকিস্তানে প্রদর্শনী ম্যাচে রোনাল্ডিনহো-গিগসরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 8, 2017 1:18 pm|    Updated: July 8, 2017 1:18 pm

Ronaldinho, Roberto Carlos, Ryan Giggs Arrive In Pakistan

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৩ মার্চ ২০০৯, লাহোরে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের বাসে জঙ্গি হামলা। তারপর থেকেই নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে বহু দেশ পাকিস্তানে ক্রিকেট সফর বাতিল করেছে। ওই ঘটনার পর থেকে সেদেশে বসেনি কোনও আন্তর্জাতিক খেলার আসরও। জঙ্গি হামলার পর থেকে প্রায় সব দেশই মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে পাকিস্তানের দিক থেকে। প্রতিবেশী ভারতে যখন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল বিশ্বকাপ, সেখানে অন্ধকারে পাকিস্তানের ক্রীড়াজগত। তবে ধীরে ধীরেই হোক এবার সন্ত্রাসের কালো ছায়ার গ্রাস থেকে ফের আলোয় ফিরছে পাকিস্তান। শনিবার সকালে দু’টি প্রদর্শনী ম্যাচ খেলতে সেদেশে পা রাখলেন রোনাল্ডিনহো, রায়ান গিগস, রবার্তো কার্লোস, নিকোলাস আনেলকা, রবার্ট পিয়ের, ডেভিড জেমস, জর্জ বোয়েতাং এবং লুই বোয়া মোর্তের মতো তারকা ফুটবলাররা। দু’টি বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে এই বিদেশি তারকারা পাকিস্তানে ফুটবল খেলতে গিয়েছেন। এদিন সকালে পাক সেনার বিশেষ চার্টাড বিমানে তাঁরা করাচিতে পা রাখেন। প্রথমে করাচি, তারপর লাহোরে প্রদর্শনী ম্যাচ খেলবেন তাঁরা।

[জানেন, গত আড়াই বছরে পাকিস্তানে কতজনের ফাঁসি হয়েছে?]

পাকিস্তানে ফুটবলের প্রচারের জন্যই বিদেশি এই তারকারা সেদেশে খেলতে গিয়েছেন। প্রদর্শনী ম্যাচে তাঁদের সঙ্গে খেলবেন পাক ফুটবলাররাও। এক বিবৃতিতে ২০০২ সালে বিশ্বকাপ জয়ী ব্রাজিল দলের সদস্য রোনাল্ডিনহো বলেন, ‘পাকিস্তানে খেলার জন্য আমি মুখিয়ে রয়েছি। এখানকার ছোট ছোট ছেলেদের উদ্ধুদ্ধ করার দারুন সুযোগ পেয়েছি। আমরা নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেব।’ অপরদিকে, ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের প্রাক্তন ফুটবলার রায়ান গিগসও জানান, এই প্রদর্শনী ম্যাচে অংশ নিতে পেরে তিনি খুব খুশি।

[অসমে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, বাড়ছে মৃতের সংখ্যা]

জানা গিয়েছে, এই ম্যাচটি খেলতে আসার জন্য বিদেশি তারকাদের ৪ থেকে ৬ লক্ষ মার্কিন ডলার করে দেওয়া হবে বলে খবর। তবে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের সঙ্গে উদ্যোক্তাদের তেমন কোনও চুক্তি হয়নি। এছাড়া বহুদিন পর কোনও আন্তর্জাতিক মানের খেলার আসর বসতে চলেছে পাকিস্তানে। তাই নিরাপত্তার ব্যবস্থাও আঁটসাঁট করা হয়েছে। বিমান বন্দর, স্টেডিয়াম থেকে শুরু করে হোটেল সমস্ত জায়গায় পাক সেনাদের মোতায়েন করা হয়েছে। এর পাশাপাশি পাকিস্তানের সাধারণ দর্শকরাও এই প্রদর্শনী ম্যাচের জন্য খুব উচ্ছ্বসিত। নিজেদের প্রিয় ফুটবলারকে দেখার জন্য রীতিমতো উত্তেজিত প্রত্যেকে। এখন দেখার সন্ত্রাসকে দূরে সরিয়ে পুনরায় খেলা ফেরে কিনা পাকিস্তানে।

[পুলিশের গুলিতে মৃত্যু গোর্খাল্যান্ড সমর্থকের, ফের অগ্নিগর্ভ পাহাড়]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে