BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কাল কানপুরে দেশের মাটিতে পাঁচশোতম টেস্ট খেলতে নামছে ভারত

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 21, 2016 8:38 pm|    Updated: September 21, 2016 9:39 pm

Virat may change the strategy for 500th test

অভিজ্ঞান সাহা, কানপুর: কানপুরের গরমের প্রকোপে মাঠে এসেও মাত্র দেড় ঘণ্টা প্র্যাকটিস করে হোটেলে ফিরে যেতে হল ভারতীয় দলকে৷ শেষ কবে এমন দৃশ্য দেখা গিয়েছিল তা সত্যিই মনে করা দুষ্কর৷ কিন্তু রোদের তাপে বেশিক্ষণ মাঠে অনুশীলন করাও সম্ভব ছিল না৷

কানপুর টেস্টের আলাদা গুরুত্ব থাকলেও রাজীব শুক্লার শহরে এই টেস্ট ঘিরে তেমন উত্তেজনা চোখে পরেনি৷ যদিও অনুষ্ঠান করে পাঁচশোতম টেস্ট মনে রাখার মতো কিছু একটা করতে চাইছেন শুক্লারা৷ তবে তাতেও যে মাঠে লোক আসবে তেমন গ্যারাণ্টি দিতে পারছেন না কর্তারা৷

প্রশ্ন উঠছে, এমন একটা টেস্ট, সেখানে কানপুরের বদলে অন্য কোথাও ম্যাচ দেওয়াই যেত? বোর্ড কর্তারা তেমন কিছু ভাবতেই পারতেন৷ আসলে লোধা নিয়ে বিসিসিআই এমন ঘেঁটে রয়েছে, এইসব নিয়ে মাথা ঘামানোর মতো এখন সময় নেই৷ যার ফলে পাঁচশোতম টেস্ট হয়তো আর পাঁচটা ম্যাচের মতোই ট্রিটমেণ্ট পাবে৷

বিরাটরা অবশ্য ঠিক করে ফেলেছেন, এই ম্যাচটা জিতে পাঁচশোর সেলিব্রেশনে মাতবেন৷ তাছাড়া সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে থাকলে গোটা সিরিজের জন্য মোমেণ্টাম চলে আসবে৷ আগের দিন রাহানে সেই কথা শুনিয়ে গিয়েছেন৷

তবে গ্রিনপার্কে নামার আগে কম্বিনেশন নিয়ে কিছুটা ধোঁয়াশা রেখে দিয়ে গেলেন বিরাট৷ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে হয়তো পাঁচ বোলারের চেনা ফর্মুলা থেকে সরে আসবেন তিনি৷ চার বোলার নিয়ে মাঠে নামতে পারে ভারত৷ কিন্তু হঠাৎ করে কেন কম্বিনেশনে বদল? বিরাট আবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরু‌দ্ধে শেষ টেস্টের প্রসঙ্গ টেনে বললেন, ওই ম্যাচেও তাঁরা চার বোলারে খেলেছিলেন৷ একই কম্বিনেশনে আটকে থেকে বিপক্ষের কাছে আসলে প্রেডিক্টেবল হতে চান না বিরাট তাই মাঝে মধ্যে বদল আনতে হয়৷ চার বোলারে খেললে সাতজন ব্যাটসম্যান৷ ফলে তেমন কাউকে হয়তো বাইরে বসতে হবে না৷ যদিও শিখরকে এদিনও নেটে সেভাবে ব্যাট করতে দেখা গেল না৷ তাহলে? প্রশ্নটা উঠছেই৷ ম্যাচের আগের দিনই বারোজনের দল বলে দেন বিরাট৷ ম্যাচের দিন সকালে সেখানে চূড়ান্ত একাদশ৷ যদি চার বোলার নিয়ে নামেন, তাহলে হয়তো তিন স্পিনারের সঙ্গে এক পেসার হিসেবে মহম্মদ সামি খেলবেন৷

এখন প্রশ্ন হল, নতুন বলে সামির সঙ্গে শুরুটা কে করবে? আগের দিন নিউজিল্যান্ড কোচ হেসন বলছিলেন, তিনি নতুন বলে যদি স্পিনারদের বল করতে দেখেন, তাহলে এতটুকু অবাক হবেন না৷ তাছাড়া এর আগে বহুবার অশ্বিন নতুন বলে শুরু করেছেন৷ কানপুরেও হয়তো সেরকমই হবে৷ আসলে আগের দিন বাইশ গজে লোকাল স্পিনাররা যেভাবে বল ঘোরালেন, তাতে বিরাটরা অনেকটাই নিশ্চিন্ত৷ ভারতীয় ড্রেসিংরুমও ধরে নিয়েছে, তিনজন স্পিনারই কাজটা করে দেবে৷ তাই অতিরিক্ত পেসার খেলানোর কোনও দরকার নেই, তার চেয়ে বরং একজন বাড়তি ব্যাটসম্যান খেলানো ভাল৷নতুন ফর্মুলায় কানপুরে সিরিজ জিতে বিরাটরা শুরু করতে পারেন কি না, সেটাই দেখার৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে