Advertisement
Advertisement

শেহবাগের টুইট নিয়ে বিতর্কের ঝড় নেটদুনিয়ায়

কী এমন টুইট করেছিলেন বীরু যার জন্য তেলে বেগুনে জ্বলে উঠলেন ভক্তরা?

Virender Sehwag gets trolled for his tweet
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:November 15, 2016 9:00 pm
  • Updated:November 15, 2016 9:11 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের ‘এক সে বরকর এক’ টুইট উপহার দেন বীরেন্দ্র শেহবাগ৷ বাইশ গজে নিজের মাস্টারস্ট্রোকের জন্য যেমন তিনি জনপ্রিয় ছিলেন, তেমনই সোশ্যাল সাইটেও তাঁর ভক্তের সংখ্যা উপচে পড়ছে৷ কখন ‘হটকে’ একটি টুইট করবেন শেহবাগ৷ সেই আশাতে বসে থাকেন তাঁর ফ্যানরা৷ কিন্তু এবার এ কী হল?

শেহবাগের টুইটে রীতিমতো খেপে গেলেন তাঁর অনুগামীরা৷ কী এমন টুইট করেছিলেন বীরু যার জন্য তেলে বেগুনে জ্বলে উঠলেন তাঁরা?

Advertisement

চায়ের আড্ডা থেকে পাড়ার রক, সোশ্যাল সাইট থেকে মেট্রো রেলের কামরা, দেশ জুড়ে এখন একটাই আলোচনা৷ ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিল৷ প্রধানমন্ত্রীর এমন সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন ভারতীয় কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান৷ আর সেই ইস্যুতে টুইট করেছিলেন তিনি৷ শহিদ ভারতীয় জওয়ান হনুমানথাপ্পার উদ্ধার কাজের একটি ছবি পোস্ট করে শেহবাগ লেখেন, “মাইনাস ৪৫ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ৩৫ ফুট বরফের নিচে ছ’দিন অপেক্ষারত ছিলেন শহিদ হনুমানথাপ্পা৷ আশা করেছিলেন তাঁকে ঠিক উদ্ধার করা হবে৷ আর দেশ উদ্ধারের জন্য মানুষ কয়েকটা ঘণ্টা লাইনে দাঁড়াতে পারবে না?”

Advertisement

মোদিকে সমর্থন করায় শেহবাগের উপর তাঁর ভক্তরা যত না রেগেছেন, তার চেয়ে বেশি চটেছেন এই ঘটনার সঙ্গে শহিদ হনুমানথাপ্পার তুলনা টেনে আনায়৷ অনেকেই এর জবাবে লিখেছেন, তাহলে এবার সরকারের সমস্ত বোকামির জন্য সেনাদের উদাহরণ টানা হবে?

আরেকজনের বক্তব্য, “এসি ঘরে বসে এসব কথা বলা খুব সহজ৷”

অন্যজনের প্রশ্ন, “সেনারা সীমান্তে যুদ্ধ করছে বলে মানুষ সব বিনোদন ত্যাগ করবে?” আরেক ভক্ত বিরক্তি প্রকাশ করে বলেছেন, “শেহবাগকে তো আর লাইনে দাঁড়াতে হবে না৷ বাড়ি বসেই সব টাকা জমা পড়ে যাবে৷” সবমিলিয়ে দেশবাসীকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে গিয়ে ‘খলনায়ক’ই হয়ে গেলেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার৷

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ