BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘বোরখা হলে, ঘোমটাও নিষিদ্ধ হওয়া উচিত’, দাবি জাভেদ আখতারের

Published by: Tanujit Das |    Posted: May 3, 2019 3:07 pm|    Updated: May 5, 2019 2:37 pm

‘If burqa is banned, veil should be too’, Javed Akhtar demands

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘‘আইনত ভাবে বোরখা পরা বন্ধ হলে, রাজস্থানের মহিলারা যে ঘোমটা দেন তাও বন্ধ হওয়া উচিত৷’’ এমনই দাবি করলেন বলিউডের প্রখ্যাত গীতিকার জাভেদ আখতার৷ দিন কয়েক আগে ঠিক যে দাবি তুলেছিলেন এআইএমআইএম নেতা তথা হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়েইসি৷ তাঁর প্রশ্ন ছিল, ‘বোরখা নিষিদ্ধ হলে ঘোমটা নয় কেন?’ এবার ওয়েইসির সুরেই সুর মেলালেন জাভেদ আখতারও৷

[আরও পড়ুন: ফণীর তাণ্ডব থেকে সারমেয়দের বাঁচাতে নেটদুনিয়ায় আবেদন স্বস্তিকার]

সম্প্রতি ভয়াবহ আইএস হানার পর বোরখা নিষিদ্ধ করেছে শ্রীলঙ্কা৷ প্রতিবেশী দেশের এই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের পর ভারতেও বোরখা নিষিদ্ধ করার দাবি উঠেছে৷ বিশেষ করে এই দাবিতে সরব হয়েছেন হিন্দুত্ববাদীরা৷ দেশের নিরাপত্তার খাতিরে মুসলিমদের এই রেওয়াজকে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছেন ভোপালের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুর৷ এমনকী, দলীয় মুখপত্র ‘সামনা’তে একই দাবি জানিয়েছে শিব সেনা৷ এরপরই বোরখার সঙ্গে সঙ্গে ঘোমটা নিষিদ্ধ করার পক্ষে সওয়াল করেন আসাদউদ্দিন ওয়েইসি৷ এবার তাঁর দাবিকে সমর্থন করলেন জাভেদ আখতার৷ সংবাদমাধ্যমকে এই প্রবীণ গীতিকার বলেন, ‘‘আমি কোনও মতেই বোরখার পক্ষে নই৷ তবে বোরখা ও ঘোমটা, দু’ক্ষেত্রেই আইন একই হওয়া উচিত৷’’

[আরও পড়ুন: কাটল জটিলতা, ভোটের ফলাফলের পরেই মুক্তি মোদির বায়োপিকের ]

এখানেই শেষ নয়, মালেগাঁও বিস্ফোরণ কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুরকে ভোপাল লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী করায় বিজেপিকেও নিশানা করেন জাভেদ আখতার৷ তাঁর মতে, ‘‘বিভিন্ন বাধ্যবাধকতার কারণেই বিজেপি প্রজ্ঞা ঠাকুরকে প্রার্থী করেছে৷ যা অত্যন্ত লজ্জাজনক সিদ্ধান্ত৷ এর থেকেই বোঝা যায়, ভোপালের মানুষের সম্পর্কে কতটা খারাপ ধারনা পোষণ করে বিজেপি৷ ঠাকুরকে প্রার্থী করে বিজেপি আগেই পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছে৷’’

কংগ্রেস ও রাহুল গান্ধীর উপরও তাঁর হতাশা ব্যক্ত করেছেন জাভেদ আখতার৷ প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করতে রাহুল গান্ধী ও কংগ্রেস নেতারা যে ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ স্লোগান ব্যবহার করছিলেন তারও বিরোধিতা করেন তিনি৷ স্পষ্ট ভাষায় জানান, ‘‘ আমি নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহকে পছন্দ করি না৷ তবে আমি রাহুল গান্ধীকে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবেও দেখছি না৷’’ ২০১৯-এর এই নির্বাচনই দেশের ভবিষ্যতের দিক-নির্দেশ করবে, এমন আশাই ব্যক্ত করেন বলিউডের বিখ্যাত এই গীতিকার৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে