BREAKING NEWS

২২  মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

১৬ দলিত শ্রমিককে বন্দি করে অত্যাচার, মারধরে গর্ভপাত এক তরুণীর, কাঠগড়ায় বিজেপি নেতা

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: October 11, 2022 8:49 pm|    Updated: October 11, 2022 10:03 pm

16 Dalits Tortured and Locked Up In Karnataka, Pregnant Woman Loses her Baby | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কফি বাগানে ১৬ জন দলিত শ্রমিককে আটকে বর্বর (Dalit Torture) অত্যচার। অভিযোগ, বেধড়ক মারধরে এক দলিত তরুণীর গর্ভপাত ঘটে যায়। সংকটজনক অবস্থায় বর্তমানে জেলা হাসপাতালে ভরতি তিনি। এই ঘটনায় অভিযুক্ত কর্ণাটকের (Karnataka) চিক্কামাগালুরু জেলার বাসিন্দা কফি বাগানের মালিক তথা স্থানীয় বিজেপি (BJP) নেতা ও তাঁর ছেলে। অভিযোগের ভিত্তিতে গেরুয়া নেতা ও তাঁর ছেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

দলিতদের উপর নৃশংস অত্যাচারের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে জগদীশ গৌড়া ও তাঁর ছেলে তিলক গৌড়ার বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে দু’জনেই পলাতক। তাঁদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে কর্ণাটক পুলিশ। পুলিশের বক্তব্য, ওই দলিতরা কফি বাগানেরই শ্রমিক। একাধিক পরিবার মালিকপক্ষের থেকে মোট ৯ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছে বলে দাবি। সেই টাকা ফেরাতে না পারায় ব্যবস্থা নেয় জগদীশ ও তাঁর ছেলে। চারটি পরিবারের ১৬ সদস্যকে কফি বাগানে তাদের ঘরেই আটকে রাখা হয়।

[আরও পড়ুন: টিউবঅয়েল পাম্প করলে জল নয়, বেরিয়ে আসছে মদ! কাণ্ড দেখে তাজ্জব পুলিশ]

এর পর টাকা ফেরত না দেওয়ায় শ্রমিকদের উপর অকথ্য অত্যাচার চালায় তাঁরা। সারাদিন আটকে রাখা হয় ১৬ জনকে। পুলিশের বক্তব্য, ৮ অক্টোবরে বালেহোন্নুর থানায় কিছু ব্যক্তি এসে জানায়, তাঁদের পরিবারের সদস্যদের কফি বাগানে জোর করে আটকে রাখা হয়েছে। জগদীশ গৌড়া অত্যাচার চালাচ্ছে। যদিও সেদিন বেলা গড়ালে অভিযোগ তুলে নেওয়া হয়। পরদিন বন্দি থাকা অন্তঃসত্ত্বা তরুণী অসুস্থ হয়ে পড়েন। বাবা-ছেলের অত্যাচারে তাঁর গর্ভপাত ঘটে যায় বলে অভিযোগ। অসুস্থ তরুণীকে হাসপাতালে ভরতি করায় বিষয়টি জানাজানি হয়।

[আরও পড়ুন: সংসারে সৌভাগ্য ফেরাতে কুসংস্কারের বলি ২ প্রৌঢ়া, দেহাংশও পুঁতে দিল দম্পতি!]

চিক্কামাগালুরুর পুলিশ প্রধান জানিয়েছেন, দিন পনেরো ধরে ওই দলিতদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছিল। অসুস্থ অন্তঃসত্ত্বা তরুণী অর্পিতা বলেন, “বন্দি করে রাখা হয়েছিল। আমাকে গালমন্দ করা হয়েছে, মারধর করা হয়েছে। আমার ফোন কেড়ে নিয়েছেন ওঁরা।” অর্পিতার মা জানিয়েছেন দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা অর্পিতা। তাকে মারধর করে জগদীশ গৌড়া। এদিকে স্থানীয় অঞ্চলে গেরুয়া নেতা বলে পরিচিত হলেও জগদীশ নেতা নয়, সাধারণ বিজেপি সমর্থক বলে দাবি করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে