BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

৪০ বিধায়কের চিঠি মানসকে, উঠছে প্রশ্ন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 13, 2016 11:54 am|    Updated: July 13, 2016 11:54 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: পিএসি চেয়ারম্যান পদ ছাড়ার চাপ মানস ভুঁইয়ার উপর বজায় রাখল কংগ্রেস৷ সাদা কাগজে ৪০ বিধায়কের স্বাক্ষর করা চিঠি পৌঁছল মানস ভুঁইয়ার কাছে৷ যদিও পদ ছাড়বেন না বলে অনড় মানস ভুঁইয়া৷ মঙ্গলবার তিনি পিএসি-র প্রথম বৈঠকও সেরে ফেলেছেন৷
পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির (পিএসি) চেয়ারম্যান পদ মানস ভুঁইয়াকে ছাড়তে হবে, এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেনি কংগ্রেস৷ ইতিমধ্যে দলের তরফ থেকেও মানস ভুঁইয়ার কাছে বার্তা গিয়েছে৷ মঙ্গলবার ৪০ জন বিধায়কের স্বাক্ষর করা অনুরোধের চিঠি পৌঁছয় সবংয়ের কংগ্রেস বিধায়কের কাছে৷ এদিন দুপুরে কংগ্রেসের পরিষদীয় দলের ঘরে বসেছিলেন মানস ভুঁইয়া৷ সেই সময়ই তাঁর হাতে চিঠিটি তুলে দেন কংগ্রেসের মুখ্যসচেতক মনোজ চক্রবর্তী৷ সাদা কাগজে অতি সংক্ষেপে লেখা এই চিঠিতে মানসবাবুর কাছে অনুরোধ করেছেন কংগ্রেস বিধায়করা৷ চিঠিতে স্বাক্ষর নেই কংগ্রেস বিধায়ক তুষার ভট্টাচার্য, অরিন্দম ভট্টাচার্য ও আসিফ মেহবুবের৷ তিনজনই জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত কাজে ব্যস্ত থাকায় চিঠিতে স্বাক্ষর করার সময় তাঁরা পাননি৷ বিষয়টি দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে জানিয়েছেন৷ কেন সাদা কাগজে চিঠি তাঁর ব্যাখ্যায় বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান বলেন, “যেহেতু মাস পিটিশন তাই সাদা কাগজে সকলের স্বাক্ষর করা চিঠি৷ ৪০ জন বিধায়কের আলাদা চিঠি পাঠানো সম্ভব নয়৷ চিঠি কী রকম, তার থেকে বড় বিষয় চিঠির বক্তব্য৷” মানস ভুঁইয়া চিঠি গ্রহণ করেছেন৷ তিনি বলেন, “যে বিধায়করা স্বাক্ষর করেছেন তাঁদের প্রত্যেককে আমি চিঠি পাঠিয়ে উত্তর দেব৷ চিঠি পাঠানো হবে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতিকেও৷ শহিদ মিনার কিংবা কুতুব মিনারের নিচের বাজার নয় বিধানসভা৷ বিধানসভার রীতিনীতি মেনেই আমি কাজ করব৷” মানসবাবুর জানিয়েছেন, “আমার কী দোষ, সেটাই জানতে চাই৷”
এদিন চেয়ারম্যান হিসাবে পিএসি-র প্রথম বৈঠক করেছেন মানসবাবু৷ তবে কংগ্রেস ও বামফ্রন্টের কোনও বিধায়কই বৈঠকে যোগ দেননি৷ পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি থাকায় তৃণমূলেরও পাঁচজন বিধায়ক অনুপস্থিত ছিলেন৷ মানসবাবু বলেন, “বামফ্রন্টের তরফ থেকে বৈঠকে থাকবে না আগেই বলা হয়েছিল৷ কিন্তু কংগ্রেসের সদস্যরা কিছু বলেননি৷ প্রথমদিন সৌজন্য সাক্ষাত্‍ ছিল৷ পিএসি পবিত্র জায়গা৷ কাজ শুরু করলাম৷ প্রতি শুক্রবার বৈঠক হবে৷ আশা করি সকল সদস্য উপস্থিত থাকবেন৷” এদিনও আবদুল মান্নানের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন মানস ভুঁইয়া৷ জানিয়েছেন, এআইসিসি ডাকলে সব প্রশ্নের উত্তর দিতে তৈরি আছেন৷ পাল্টা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি বলেন, “মানস ভুঁইয়া শহিদ হতে চাইছেন৷ বর্ষীয়ান নেতা৷ তাঁকে সময় দেওয়া হচ্ছে৷ শুভবুদ্ধির উদয় হোক৷”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement