BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মমতার সভায় জনসমুদ্রে সিঁদুরে মেঘ দেখছে সিপিএম

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 10, 2016 9:18 am|    Updated: August 10, 2016 9:53 am

An Images

প্রণব সরকার:  তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভায় জনসমুদ্র চিন্তার ভাঁজ ফেলল শাসক সিপিএমের কপালে৷ পুলিশের হিসাবে লোক হয়েছে এক লক্ষের কাছাকাছি৷ প্রাক্তন বিরোধী দলনেতা বিধায়ক সুদীপ রায়বর্মনের দাবি, লক্ষাধিক৷ এছাড়াও বহু মানুষ মাঠেই ঢুকতে পারেননি৷ আগরতলা শহরে যানজটের কারণে তাঁরা জনসভাস্থলে আসতে পারেননি৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাষণ সিপিএমের নেতা-মন্ত্রীরাও শুনেছেন৷ মেলার মাঠের পার্টির সদর দফতরে লাগানো টিভিতে সিপিএমের নেতা-মন্ত্রীরা মন দিয়ে ভাষণ শোনেন৷ যদিও প্রকাশ্যে এ ব্যাপারে কোনও ধরনের প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন না সিপিএমের শীর্ষ নেতারা৷ সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর এ ব্যাপারে কোনও ধরনের মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছেন৷ যদিও মমতার জনসভা শেষ হতেই সন্ধ্যায় রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর জরুরি বৈঠক বসে৷ বৈঠকে তৃণমূল নেত্রীর বিশাল জনসভা নিয়ে আলোচনা হয়৷ গতকালই ত্রিপুরায় এসেছেন পশ্চিমবঙ্গের সিপিএম পার্টির সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র৷ তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে পার্টির নেতৃত্বকে সতর্ক করে দিয়েছেন বলে খবর৷ আজ রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠকে তৃণমূল কংগ্রেসকে আগাম প্রতিহত করার কৌশল নেওয়া হয়েছে৷ সিপিএমের রাজ্যের জনৈক শীর্ষনেতা বলেছেন, “জনসভাতে যে এত লোক হবে তা পার্টির ধারণার বাইরে ছিল৷ পুলিশের রিপোর্ট, লক্ষাধিক লোক এসেছিল সভায়৷ এছাড়া জনসভার উন্মাদনা দেখে পার্টিকে নতুন করে ভাবতে হচ্ছে৷”

পার্টির শীর্ষনেতা আরও জানান, আজকের সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের থাকার কথা ছিল৷ কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী আজ ধলাই জেলার আমবাসা সফরে চলে যান৷ সন্ধ্যায় ফেরার কথা ছিল৷ কিন্তু শেষ মুহূর্তে তিনি বৈঠকে উপস্থিত হতে পারেননি৷ আগামিকাল মুখ্যমন্ত্রী আগরতলায় ফিরবেন৷ ফিরলে সন্ধ্যায় ফের সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠক বসার কথা রয়েছে৷ পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেসের বিরু‌দ্ধে লাগাতার প্রচার আন্দোলনে যাচ্ছে সিপিএমের রাজ্য কমিটি৷

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement