BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

উপকূলে জঙ্গিহানার বার্তায় বাড়ানো হল নিরাপত্তা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 15, 2016 4:52 pm|    Updated: July 15, 2016 4:52 pm

An Images

সুদীপ রায়চৌধুরি: সতর্কবার্তা ছিলই৷ এবার সম্ভাব্য জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নিয়ে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার জরুরি রিপোর্টের পর রাজ্যের সমুদ্রোপকূলবর্তী এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাতারাতি কয়েকগুণ বাড়ালো হল৷ বেশি জোর দিতে বলা হল কাঁটাতারের বেড়া যে জায়গাগুলিতে নেই, সেই জায়গাগুলিতে৷ পাশাপাশি কেন্দ্রীয় এজেন্সির প্রস্তাব মতো গোটা এলাকা জুড়ে সিসিটিভি ক্যামেরা বসিয়ে ‘লাইভ মনিটরিং সিস্টেম’ চালুর উপর জোর দিতে বলা হয়েছে৷ রাজ্যের উপকূল পুলিশের প্রতিটি থানাকে নির্দেশ পাঠিয়ে দিয়েছে স্বরাষ্ট্র দফতর৷

ঢাকার গুলশান ক্যাফের ঘটনার পর থেকেই এরাজ্যের সীমান্তবর্তী এলাকায় নজরদারি বাড়ানো হয়েছিল৷ ওপার বাংলার পর জঙ্গিদের লক্ষ্য এখন এপার বাংলা– সেসময় নয়াদিল্লি এবং ঢাকা, দু’জায়গা থেকেই এমন সতর্কবার্তা পাওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছিল রাজ্য স্বরাষ্ট্র দফতর৷ ওই রিপোর্টে বলা হয়েছিল বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঢুকে পড়ার পরিকল্পনা রয়েছে জঙ্গিদের৷ তারপরই সীমান্ত এলাকায় যাতে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা হয়, তার উদ্যোগ নিয়েছিল স্বরাষ্ট্র দফতরের শীর্ষ মহলের তরফ থেকে৷ এবার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা এজেন্সির নতুন সতর্কবার্তা পাওয়ার পর রাজ্যের সমুদ্রোপকূলবর্তী এলাকাগুলিকে নিরাপত্তার লৌহ চাদরে মুড়ে ফেলার নির্দেশ গিয়েছে নবান্ন থেকে৷

রাজ্য স্বরাষ্ট্র দফতর সূত্রে খবর, রাজ্যের প্রতিটি উপকূলবর্তী থানাকে গোটা উপকূল জুড়ে ২৪ ঘণ্টা কড়া নজরদারির চালানোর পাশাপাশি কাঁটাতারের বেড়া যে এলাকায় নেই, সেই এলাকাগুলিতে বাড়তি গুরুত্ব দিতে নির্দেশ পাঠানো হয়েছে৷ বলা হয়েছে, এই নজরদারি যাতে নিশ্চিদ্র হয়, তা নিশ্চিত করতে সমস্ত রকমের আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্য নেওয়ার জন্য৷ রাজ্য স্বরাষ্ট্র দফতরের একটি সূত্র জানাচ্ছে, “উপকূল পুলিশের সমস্ত থানাকে বলা হয়েছে, জলপথে ও স্থলভাগে টহলদারির পাশাপাশি আকাশপথে নজরদারি চালানোর জন্য৷

যদিও রাতারাতি এহেন লৌহকঠিন নিরাপত্তার আয়োজন নির্দিষ্ট কোনও গোয়েন্দা রিপোর্টের ভিত্তিতে, এমন তত্ত্বকে স্বীকার করতে চাননি স্বরাষ্ট্র দফতরের কর্তারা৷ রাজ্যপুলিশের অতিরিক্ত ডিজি (আইন শৃঙ্খলা) অনুজ শর্মা বলেছেন, “এটা কোনও বিশেষ নির্দেশ নয়৷ এমনিতেই সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ঘটনায় রাজ্যের সীমান্ত এলাকা-সহ বিভিন্ন এলাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ সেই মোতাবেক সমুদ্রোপকূলবর্তী অঞ্চলেও টহলদারি জোরদার করা হচ্ছে৷ এতে নতুন কিছু নেই৷”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement