BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অখ্যাত চেজের প্রতিরোধেই ড্র দ্বিতীয় টেস্ট

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 4, 2016 10:12 am|    Updated: August 4, 2016 8:03 pm

An Images

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ১৯৬ ও ৩৮৮/৬
ভারত: ৫০০/৯ ডিক্লেয়ার
ম্যাচ ড্র

দেবাশিস সেন, জামাইকা: বৃষ্টির ভ্রুকুটি তো ছিলই৷ সেই সঙ্গে আরও তিনজনের চোখ রাঙানি দেখলেন ভারতীয় বোলাররা৷ ব্ল্যাকউড, ডউরিচ ও চেজের৷ এই তিনের চওড়া ব্যাটেই ক্যারিবিয়ানদের মাটি ধরানো গেল না৷ খানিকটা অপ্রত্যাশিতভাবেই ড্র দিয়ে শেষ হল সাবিনা পার্কের দ্বিতীয় টেস্ট৷

অপ্রত্যাশিত কেন? কারণ চতুর্থ দিন ব্যাট করতে নেমে ৪৮ রানে চারটে উইকেট খুইয়ে বসে ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ৷ তবে বৃষ্টিই হয়ে গেল অ্যাডভান্টেজ৷ কথায় আছে, কারও পৌষমাস, কারও সর্বনাশ৷ দুই শিবিরের ছবিটা এক্ষেত্রে তেমনই৷ বৃষ্টির কারণে হাতে আরও একটা দিন সময় পেয়ে গেলেন জেসন হোল্ডাররা৷ ফলে চাপ বাড়ল সামি, ইশান্ত, অশ্বিনদের৷ টার্গেট ছিল, ম্যাচের শেষ দিন যেভাবেই হোক ছ’টা উইকেট তুলতে হবে৷ কিন্তু হল কই! সারাদিনে মাত্র দু’খানা উইকেটই পড়ল আয়োজকদের৷ ৭৪ রানে ডউরিচকে ফেরালেন অমিত মিশ্র৷ আর ব্ল্যাকউড আউট হলেন ৬৪ রান করে৷ তবে তাতেও ক্যারিবিয়ানদের পায়ের তলার মাটি শক্তই থাকল৷ সৌজন্যে চেজ৷ টিম ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করে দলের মান রক্ষা করলেন৷ ১৩৭ রানে অপরাজিত থেকে ম্যাচের সেরাও হয়ে গেলেন তিনি৷

india_web

সাবিনা পার্কে বুধবারের ঝকঝকে সকাল বিরাট, শিখরদের মধ্যে জয়ের শেষ আশা আবার জিইয়ে উঠেছিল৷ সেই আশার আলো আটকে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে ছিলেন ব্ল্যাকউড৷ তাঁকে ফেরাতে পারলেই ফের জয়ের আলো এসে চোখে পড়বে৷ কিন্তু তারপরেও যে আরও শক্তিশালী প্রাচীরের মুখে পড়তে হবে, তখনও তা ক্যাপ্টেন বিরাটের অজানাই ছিল৷

প্রাক্তনরা ক’দিন আগেও হলফ করে বলেছিলেন, বিরাট এখন বড় হয়ে উঠেছেন৷ এই বিরাট আর মাঠের মধ্যে মেজাজ হারিয়ে দর্শকদের উদ্দেশে মধ্যমা দেখাননা৷ কথায়, হাবে-ভাবে তিনি নিজেকে অনেক সংযত করে ফেলেছেন৷ কারণ, নেতৃত্বের দায়িত্ব! প্রাক্তনরা নিজেদের কথা হয়তো আবার ফিরিয়ে নিতে পারেন৷ সাবিনা পার্কের বিরাট সেই আগের মতোই৷ একটা হাফ-চান্স মিস হলেই বিরাট প্রায় মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়ছিলেন৷ তারপর সতীর্থদের ছোটখাটো ভুলে আফসোস তো ছিলই!

unnamed1

ভারতীয় বোলারদের এদিনের পারফরম্যান্সে অবশ্য বেশ হতাশ কোচ অনিল কুম্বলে৷ ম্যাচ ড্রয়ের পর তিনি বলছিলেন, “চতুর্থ দিন পর্যন্ত ভাল জায়গাতেই ছিলাম আমরা৷ তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা দারুণ খেলেছে৷ গতকাল অনেকটা মূল্যবান সময় খরচ হয়ে গিয়েছিল৷ আরও ভাল বোল করা উচিত ছিল৷ তবে বৃষ্টিতে অনেকগুলো ওভার খেলা হয়নি৷ সব বিষয়গুলোই ম্যাচের ফলাফলে প্রভাব ফেলে৷ আবার দ্বিতীয় দিন ম্যাচ ডিক্লেয়ার করে দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যাট করা যেত৷ মোট কথা তৃতীয় টেস্টের আগে ক্রিকেটারদের সঙ্গে বসে আলোচনা করতে হবে৷ কখন ডিক্লেয়ার করব, কত টার্গেট রাখব, এসব বিষয়ে আরও সতর্ক হতে হবে৷”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement