১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সীমান্ত পেরনো গ্রামে এবার আলো জ্বলল ভারতেরই বিদ্যুতে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 15, 2016 3:58 pm|    Updated: October 15, 2016 3:58 pm

Haripukur Border Village Gets India’s Electricity, No More Dependency On Bangladesh

নিজস্ব সংবাদদাতা: নামেই তাঁরা ছিলেন ভারতীয়৷ কিন্তু যাবতীয় বিষয়ে সবাই ছিলেন বাংলাদেশের উপরই নির্ভরশীল৷ এমনকী, বাংলাদেশের বিদ্যুতেই ঘরে জ্বলত আলো৷ এত বছরের ছবিটা বদলে গেল এবার৷ প্রতিশ্রুতি মতো নিজেদের রাজ্যের দেওয়া বিদ্যুতেই ঘরে জ্বলল আলো৷ দক্ষিণ দিনাজপুরের কাঁটাতারের ওপারের গ্রাম হাঁড়িপুকুর এখন এপারের আলোতে ঝলমল করছে৷
দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হিলির ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট বরাবর বর্ডার রোড ধরলে মেরেকেটে চার কিলোমিটার দূরে রয়েছে হাঁড়িপুকুর গ্রাম৷ বেড়াহীন দুই দেশের সীমারেখা বোঝাতে রয়েছে ৭০ ফুট অন্তর দেড় ফুটের পিলার৷ অদ্ভুতভাবে দুই দেশের সীমানা নির্ধারণে হাঁড়িপুকুর গ্রামের বহু বাড়ির অর্ধেকটা রয়েছে ভারতে৷ বাকি অর্ধেকটা পড়ে গিয়েছে বাংলাদেশে৷ ফলে দুই দেশের সঙ্গেই গ্রামের ৩০০ পরিবারের ছিল অবাধ যোগাযোগ৷ ভারতীয় হলেও এতদিন গ্রামে নিজেদের দেশের বিদ্যুতের আলো পৌঁছয়নি হাঁড়িপুকুরে৷ ভৌগোলিক অবস্থানের নানা অজুহাত দেখিয়ে বাম সরকার বারবার বিদ্যুতের বিষয়টি এড়িয়ে গিয়েছিল৷ অথচ, গ্রামের বাসিন্দাদের অন্যতম দাবিই ছিল বিদ্যুৎ৷ বাংলাদেশের বিদ্যুতেই কোনওক্রমে কাজ চলত৷
নির্বাচনের সময় গ্রামে বিদ্যুতের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তৃণমূল৷ সেই প্রতিশ্রুতি মেনে ইতিমধ্যেই গ্রামে পৌঁছে গিয়েছে বিদ্যুৎ৷ হাঁড়িপুকুরের বাসিন্দা মানিক শেখ, আনারুল শেখ বলেন, “বিদ্যুতের অভাবে আমরা দীর্ঘদিন ধরেই প্রচণ্ড সমস্যায় ছিলাম৷ আমরা বাংলাদেশ থেকে বিদ্যুৎ নিতে বাধ্য হয়েছিলাম৷ নিজেদের ভারতীয় বলে পরিচয় দিতে লজ্জা লাগত৷ এখন সেসবই ইতিহাস৷ তৃণমূল ক্ষমতায় এসে আমাদের গ্রামে বিদ্যুৎ দিয়েছে৷”
এ প্রসঙ্গে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শঙ্কর চক্রবর্তী বলেন, “দীর্ঘদিন ধরেই হাঁড়িপুকুরের বাসিন্দারা বিদ্যুৎ সমস্যায় ভুগছিলেন৷ বাম সরকার কিছু না করায় তাঁরা বিভিন্ন উপায়ে বাড়িতে বিদ্যুতের ব্যবস্থা করেছিলেন৷ আমরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, ক্ষমতায় এলে বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান করব৷ তা আমরা করে দেখিয়েছি৷”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে