৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাংলায় জোট ভাঙতে পার্টি সদস্যদের বোঝাবেন কারাত

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 10, 2016 9:20 am|    Updated: July 10, 2016 9:20 am

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: কংগ্রেসের সঙ্গে সংস্রব রেখে চলা যাবে না৷ মানতে হবে পার্টি লাইন৷ এটা বোঝাতেই রবিবার আলিমুদ্দিনে আসছেন সিপিএম পলিটব্যুরোর একঝাঁক সদস্য৷ আজ আলিমুদ্দিনের বৈঠকে উপস্থিত থেকে প্রকাশ কারাত, এম এ বেবি থেকে মানিক সরকাররা দলের রাজ্য নেতাদের জানিয়ে দেবেন কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বেঁধে চলা যাবে না৷ সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কমিটি যে নিদান দিয়েছে তা মানতে হবে৷ কংগ্রেস বিরোধিতার পক্ষে সিলমোহর দিতে আসা পলিটব্যুরোর সদস্যদের এই বড় অংশকে পাল্টা জবাব দিতে অবশ্য তৈরি হচ্ছে আলিমুদ্দিনও৷ পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করেই কংগ্রেসের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রেখে চলাটা যে জরুরি এই যুক্তিটাকেই মূলত অস্ত্র হিসাবে তুলে ধরে জোটের পক্ষে যুক্তি সাজাতে চান চান বঙ্গ সিপিএমের জোটপন্থী নেতারা৷

কংগ্রেসের সঙ্গে বন্ধুত্ব চালিয়ে যাওয়া নিয়ে শেষমেশ কী হতে পারে তা নিয়ে সিপিএমের অন্দরের ছবিটা এখনও স্পষ্ট নয়৷ জোট করে ভোট করার জন্য ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় কমিটি তিরস্কার করেছে সিপিএমের রাজ্য নেতাদের৷ কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে চলার বিষয়টি পার্টি লাইনের বিরোধী৷ কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করার অবস্থানকে অনেকে আবার সিপিএমের সুবিধাবাদী মনোভাব বলেই মনে করছেন৷

গত বিধানসভা নির্বাচনে সিপিএম-কংগ্রেস জোটকে এ রাজ্যে প্রচারে অন্যতম হাতিয়ার হিসাবে তুলে ধরেছিল বিজেপি৷ কেরলে কুস্তি আর বাংলায় দোস্তি–এই স্লোগানকে রাজ্যে এসে বিভিন্ন জনসভায় সিপিএম ও কংগ্রেসকে আক্রমণ করেছিলেন নরেন্দ্র মোদি থেকে অমিত শাহ-রা৷ এর পর ভোটে ধরাশায়ী হওয়ার পরও আলিমুদ্দিন অবশ্য বিধানসভার অভ্যন্তরে ও বাইরে কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের ছবিটাই ধরে রেখে চলছে৷ বাংলায় কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের সম্পর্ক ধরে রাখার পক্ষে সূর্যকান্ত মিশ্র, সুজন চক্রবর্তীদের পাশে দলের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি থাকলেও পলিটব্যুরোর বড় অংশই জোটের বিরু‌দ্ধে৷

আজ সীতারাম ইয়েচুরি ছাড়াও প্রকাশ কারাত, বৃন্দা কারাত, এম এ বেবি, মানিক সরকারের মতো পলিটব্যুরোর সদস্যরা আলিমুদ্দিনের বৈঠকে থাকবেন৷ সীতারাম ছাড়া বাকি যাঁরা আজ আসছেন তাঁরা জোটবিরোধী হিসাবেই পরিচিত৷ তাই দলের কট্টরপন্থী এই নেতারা আলিমুদ্দিনকে আজ জানিয়ে দেবেন পার্টি লাইন অনুযায়ী কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বেঁধে চলা যাবে না৷ সেক্ষেত্রে কী পথ সেটা নিয়েও আলোচনা হবে৷ বঙ্গের নেতাদের পাশে থাকা সীতারাম ইয়েচুরি পলিটব্যুরোর বড় অংশের জোট বিরোধীতাকে আজ কতটা ঠেকাতে পারেন সেটাই আজ দেখার৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement