BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লগ্নির লক্ষ্যে সেপ্টেম্বরে রোম ঘুরে মিউনিখ সফর মমতার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 23, 2016 8:58 am|    Updated: July 23, 2016 8:58 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: শুধু রোম নয়, জার্মানিও যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জার্মানির মিউনিখ ও ডুসেলডর্ফে শিল্প সম্মেলনে অংশ নেবেন তিনি৷ মিউনিখে বিএমডব্লু-সহ বহু নামী অটোমোবাইল শিল্পের কেন্দ্র রয়েছে৷ তাই তাঁর সফরের ফলে রাজ্যের অটোমোবাইল শিল্পের প্রসার ঘটবে বলে আশা করা যায়৷

শুক্রবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সফরসূচি জানান শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র৷ অমিত মিত্র মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বাণিজ্যিক প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসাবে জার্মানি যাবেন৷ তিনি জানান, আগামী ৪ সেপ্টেম্বর মাদার টেরিজার ‘ক্যানোনাইজেশন সেরিমনি’তে অংশ নিতে মুখ্যমন্ত্রী রোমের ভ্যাটিক্যান সিটি যাবেন৷ মাদারের সঙ্গে মমতার ব্যক্তিগতস্তরে গভীর সম্পর্ক ছিল৷ পশ্চিমবঙ্গের প্রতিনিধি হিসাবে সেখানে যাবেন তিনি৷

মিশনারিজ অফ চ্যারিটির পক্ষ থেকে আলাদাভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়৷ এরপর ভ্যাটিক্যান সিটির পক্ষ থেকেও ভারতীয় দূতাবাস মারফত আমন্ত্রণ আসে৷ মাদার টেরিজার ‘সেণ্টহুড’ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও উপস্থিত থাকতে পারেন বলে জানা গিয়েছে৷ অমিত মিত্র এদিন বলেন, “রাজ্যের ক্ষেত্রে তো বটেই, দেশের ক্ষেত্রেও বিষয়টি গর্বের৷ রোমের মেয়রও আমন্ত্রণ জানিয়েছেন৷ মুখ্যমন্ত্রীর সম্মানে বিশেষ খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন করবেন তিনি৷ সেখানে আবার ইতালির গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা উপস্থিত থাকবেন৷”

মুখ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছিলেন, রোম সফরের সময় আশপাশের দেশে বিনিয়োগের বার্তা নিয়ে তিনি যাওয়ার চেষ্টা করবেন৷ শিল্পমন্ত্রীও জানিয়েছেন, জার্মানির বণিকসভাগুলির সেরা দুই সংগঠন বিভিএমডব্লু ও এআইএইচকে মুখ্যমন্ত্রীকে সেখানে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন৷ রোমের পরই আগামী ৬ ও ৭ সেপ্টেম্বর মিউনিখ ও ডুসেলডর্ফে যাবেন তিনি৷ মিউনিখকে অটোমোবাইল শিল্পের শহর বলেই বিশ্ব জানে৷ উচ্চ প্রযুক্তির ব্যবহারেও অনেক এগিয়ে জার্মানির তৃতীয় বৃহত্তম এই শহর৷ অন্যদিকে, ডুসেলডর্ফকে ‘সিটি অফ টেলিকমিউনিকেশন’ বলা হয়৷ বিশ্বের সেরা মোবাইল সংস্থাগুলিরও অন্যতম মূল কেন্দ্র রয়েছে ডুসেলডর্ফে৷

নবান্ন সূত্রে খবর, বিভিএমডব্লু-র আওতায় ৩০০টিরও বেশি জার্মান বণিক সংগঠন রয়েছে৷ মোট সদস্য সংখ্যা প্রায় ২৭ হাজার ও কর্মীর সংখ্যা প্রায় ৯০ লক্ষ৷ মোটামুটিভাবে বিভিএমডব্লু নিজেই একটি শিল্পপ্রতিষ্ঠান৷ সেই সম্মিলিত সংস্থার আমন্ত্রণ অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ৷ তারা গত পাঁচ বছরে রাজ্যের ব্যাপক উন্নয়ন হার সম্পর্কে ওয়াকিবহাল বলে অমিত মিত্র জানান৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement