BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বিমানবন্দরে মণিপুরি যুবতীকে হেনস্তা, হস্তক্ষেপ সুষমার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 11, 2016 6:44 pm|    Updated: July 11, 2016 6:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মণিপুরের আফস্পা বিরোধী আন্দোলনের পরিচিত মুখ মণিকা খানগেমবাম দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী বিমানবন্দরে জাতিবিদ্বেষের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ৷ তিনি ‘ভারতীয়’ কি না, জানতে চেয়ে অভিবাসন দফতরের এক কর্মী তাঁকে হেনস্তা করেন৷ অভিযোগ, মণিকা খানগেমবাম দেশের সবকটি রাজ্যের নাম বলতে পারবেন কি না-সহ একগুচ্ছ অবাঞ্চিত প্রশ্নের সম্মুখীন হন৷ সিওলগামী বিমান ধরার তাড়াহুড়ো থাকা সত্ত্বেও তাঁকে জাতিবিদ্বেষের জন্য অকারণে দেরি করানো হয় বলেও অভিযোগ৷

এরপরেই ক্রুদ্ধ মণিকা খানগেমবাম তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে একটি দীর্ঘ পোস্ট করেন৷ কিছুক্ষণের মধ্যেই তাঁর পোস্টটি ভাইরাল হয়ে ওঠে৷ মণিকার ঘটনার কথা জানতে পেরে পাল্টা টুইট করেন কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷ সুষমা লিখেছেন, “অভিবাসন দফতর আমার হাতে না থাকলেও আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে কথা বলব৷ বিমানবন্দরে অভিযুক্ত কর্মীর দোষ প্রমাণিত হলে উপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷” উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে টুইটে আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কিরেন রিজিজুও৷

মণিকা খানগেমবাম তাঁর ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন, শনিবার সিওল যাবেন বলে দিল্লি থেকে বিমানে চাপতে যাচ্ছিলেন তিনি৷ অভিবাসন দফতরের কর্তব্যরত কর্মীকে পাসপোর্ট দেখালে ওই কর্মী তাঁর বিরুদ্ধে জাতিবিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেন বলে দাবি করেছেন মণিকা৷ তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, তিনি সত্যি ভারতীয় কি না! মণিপুরের আশেপাশে কোন কোন রাজ্য আছে, তাও জানতে চাওয়া হয়৷ অভিযুক্ত কর্মীর পাশে বসে থাকা আরেক মহিলা কর্মীও হেসে প্রচ্ছন্ন মদত যোগাচ্ছিলেন বলেও অভিযোগ করেছেন মণিকা৷ তাঁর দাবি, দেশের উত্তর-পূর্বের বাসিন্দাদের প্রতি সাধারণ মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টানো দরকার৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement