১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বুরহানের মৃত্যুতে ‘শোকস্তব্ধ’ পাকিস্তান ও হাফিজ সঈদ!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 11, 2016 5:55 pm|    Updated: December 1, 2020 3:12 pm

Pakistan Government, Hafiz Saeed Provoke With   Comments On Burhan Wani

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে হিজবুল মুজাহিদিন কম্যান্ডার বুরহান ওয়ানির মৃত্যুতে ‘শোকস্তব্ধ’ পাকিস্তান৷ ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ ওই হিজবুল নেতার মৃত্যুতে শুধু শোকপ্রকাশ করেই থেমে থাকেননি পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ৷ কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার ভূমিকার সমালোচনা করে বলেছেন, ভূস্বর্গে সেনার দাপট বন্ধ হোক! পাকিস্তানের সুরেই গলা মিলিয়েছে আরেক কুখ্যাত জঙ্গি হাফিজ সঈদও৷ সোমবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরে আয়োজিত বুরহানের শোকসভায় যোগ দিতে এসে মুম্বই হামলার মূল চক্রী সঈদের মন্তব্য, “কাশ্মীরের প্রতিটি ঘর থেকে আরও বুরহান বেরোবে৷” সঈদ যখন এই মন্তব্য করছে, তখন মঞ্চে উপস্থিত আরেক কুখ্যাত জঙ্গি সঈদ সালাহউদ্দিন, হিজবুলের আরেক নেতা৷

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, কাশ্মীর উপত্যকায় বুরহানের মৃত্যুর পর অশান্তির ঢেউ এসে ভিড়তেই নড়েচড়ে বসেছে পাকিস্তান৷ আগুনে ঘি ঢালতে বিরোধী দলগুলি পাক প্রধানমন্ত্রীর উপর চাপ বাড়াচ্ছিল৷ যার ফলস্বরূপ সোমবার পাক প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে নওয়াজ শরিফের বিবৃতি প্রকাশিত হল৷ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “আজাদ কাশ্মীর আন্দোলনের নেতা বুরহান ওয়ানির মৃত্যুতে গভীর আঘাত পেয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ একা বুরহান নয়, ভারতীয় সেনাবাহিনী ও আধাসেনার বুলেটের শিকার হচ্ছেন কাশ্মীরের সাধারণ মানুষ৷ এমনকী, বুরহানের শেষকৃত্যে যোগ দিতে আসা বহু মানুষের উপরেও বলপ্রয়োগ করছে ভারতীয় সেনা৷ এভাবে কাশ্মীরের মানুষের দাবিকে চেপে রাখা যাবে না৷” আজাদ কাশ্মীরের দাবিকে বন্দুকের নলের মুখে দমিয়ে রেখে ভারত রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার আইন লঙ্ঘন করছে বলেও দাবি করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ একই দিনে হাফিজ ও পাকিস্তানের তরফে জোড়া প্ররোচনার ইঙ্গিতকে অবশ্য বিশেষ গুরুত্ব দিতে নারাজ ভারত৷ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী কিরেন রিজিজু বলেন, “জম্মু ও কাশ্মীরে কী হচ্ছে না ভেবে পাক অধ্যুষিত কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে পাকিস্তানের মাথা ঘামানো উচিত৷ কাশ্মীর ইস্যু ভারতের একান্ত ব্যক্তিগত৷” কাশ্মীরে পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে পাক জঙ্গিরা যেন নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করে ভারতে ঢুকে না পড়ে তার জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও মজবুত করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

(বুরহানের মৃত্যুতে ফুটছে কাশ্মীর, মৃত বেড়ে ২৩)

এদিকে, হিজবুল জঙ্গি বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পর তিনদিন কেটে গেলেও এখনও তপ্ত কাশ্মীর৷ বিক্ষোভ-সংঘর্ষে একেবারে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি গোটা উপত্যকাজুড়ে৷ শান্তির কোনও লক্ষণ নেই৷ জারি রয়েছে কারফিউ৷ উত্তেজনার পারদ ঊর্ধ্বমুখী৷ উন্মত্ত জনতার রোষ পুলিশের উপর থেকে যেন কিছুতেই কমছে না৷ পুলিশকে মারতেও হাত কাঁপেনি ক্ষিপ্ত জনতার৷ এখনও পর্যন্ত পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ২৩ জন৷ জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি-সহ শীর্ষস্থানীয় রাজনৈতিক নেতারা একাধিকবার আবেদন করা সত্ত্বেও অশান্তির কালো ছায়া সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দীর্ঘ হচ্ছে৷ বিশেষ করে দক্ষিণ কাশ্মীর কার্যত অবরুদ্ধ অবস্থায়৷ এক কথায় গোটা কাশ্মীর উপত্যকায় বনধের চিত্র ধরা পড়েছে৷ রাস্তায় এদিনও দেখা মেলেনি কোনও যানবাহনের৷ শুধুই টহল দিয়েছে পুলিশ-ভ্যান৷ মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ৷ দোকান-বাজারও খোলা ছিল না৷

জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশও যুব সম্প্রদায়কে অযথা উত্তেজনা ছড়াতে নিষেধ করেছে৷ যুবকদের বিক্ষোভে অংশ নিতে বারণ করা হয়েছে৷ উত্তপ্ত পরিস্থিতি মোকাবিলায় কড়া পুলিশি প্রহরার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে৷ ইতিমধ্যেই বহু পর্যটক জম্মু ও কাশ্মীর ছেড়ে বাড়ি ফেরার পরিকল্পনা নিয়েছেন৷ বিমানবন্দরগুলিতেও উপচে পড়ছে ভিড়৷ সকলের মুখেই আতঙ্কের ছাপ৷ তবে সকলকে শান্তি বজায় রাখার জন্য আবেদন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি৷ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি৷

(উমর খালিদের জামিন খারিজের দাবি এবিভিপি-র)

রবিবার পর্যন্ত অমরনাথ যাত্রা বন্ধ থাকায় প্রায় ১৫ হাজার হাজার তীর্থযাত্রী জম্মুতে আটকে ছিলেন৷ তবে সোমবার বিকেল থেকে ফের অমরনাথ যাত্রা শুরু হয় নজিরবিহীন কড়া নিরাপত্তায়৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রী মুফতিকে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার জন্যও আবেদন করেছেন রাজনাথ৷ পাশাপাশি, কারও নাম না করেই কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নাইডু পাল্টা আক্রমণ শানিয়ে বলেন, “সত্যি অবাক হচ্ছি৷ একজন সন্ত্রাসবাদীর জন্য সহানুভূতি দেখিয়ে একদল মানুষ বিক্ষোভকারীদের মদত দিচ্ছে৷ কেন্দ্র-রাজ্য একযোগে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করবে৷ কোনওভাবেই সন্ত্রাসবাদকে মেনে নেওয়া হবে না৷”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে