BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নিম্নচাপের ভ্রুকুটি এড়িয়ে পুজোর বাজারে বাঙালি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 21, 2016 9:15 am|    Updated: August 21, 2016 9:15 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: সকাল থেকেই রোদ-মেঘের লুকোচুরি৷ তবে বৃষ্টির নামগন্ধ নেই৷ এমন শরতে কি আর ঘরে আটকে থাকা যায়! শনিবারের ছবিটা ছিল এমনই৷ যেখানে পুজো আসতে আর মাস দেড়েকও নেই৷ বাঙালির মনেও বেজেছে ঢাকের বোল৷ আবার কখন বৃষ্টি শুরু হয়ে যায়! তাই শনিবার সকাল থেকেই তাই পুজো শপিংয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে তিলোত্তমা৷

হাতে তো বেশি সময় নেই৷ ভিড় তো আরও বাড়বে৷ অনেকেই তাই বেড়িয়ে পড়ে ছিলেন পুজোর শপিংয়ে৷ শপিং মল থেকে বুটিক, ধর্মতলার ফুটপাথ থেকে গড়িয়াহাট মার্কেট৷ সর্বত্রই ভিড়ে ঠাসা৷ দোকানে ঢুকেই লেটেস্ট ফ্যাশনের ড্রেসটা বেছে নিতে কার্পণ্য করতে রাজি নয় জেনারেশন ওয়াই৷ আবহাওয়া দফতর বলছে, রবিবার থেকে নাকি নিম্নচাপের ভ্রূকুটি৷ ফলে বৃষ্টি হতে পারে৷

পুজোর কাউন্টাউন শুরু হয়ে গিয়েছে আরও মাসখানেক আগে থেকেই৷ চলছে পালা করে খুঁটি পুজো৷ বারোয়ারিতে মণ্ডপ তৈরির প্রস্তুতি৷ তাহলে শপিংয়েই বা পিছিয়ে থাকে কেন বাঙালি৷ মাসের মাঝামাঝি হওয়ায় আলমারির লকারে ক্যাস কম তো কী হয়েছে! পকেটে অনেকেরই খানকতক কার্ড৷ তাই শপিং মলে কেনাকাটা চলল ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ডেই৷ এবার আবার পুজোয় নতুন ট্রেন্ড নানা ডিজাইনের চশমা৷ তাই চশমা এবং সানগ্লাসের দোকানেও ভিড় চোখে পড়ল৷ নিউ মার্কেটে মেয়েদের ইমিটেশন গয়নার দোকনেও উপচে পড়া ভিড়৷

জনতার ভিড়ে কোনওরকম অপ্রীতিকর ঘটনা বা ইভটিজিং এড়াতে ইতিমধ্যেই শহরজুড়ে মোতায়েন হয়েছে প্রচুর পুলিশ৷ বিশেষত যেখানে কেনাকাটার জন্য ভিড় বেশি সেই সমস্ত এলাকায় চলছে বিশেষ নজরদারি৷ কেনাকাটা সেরে একটু শান্তিতে খাওয়ারও এদিন জো ছিল না৷ রেস্টুরেন্টে গিয়েও প্রায় ঘণ্টাখানেক অপেক্ষা করার পর তবে মিলছে খাবার৷ শনিবার হলেও এদিন ট্রেন, বাস, মেট্রোতেও ছিল উপচে পড়া ভিড়৷ তবে শুধু কলকাতা নয়, শহর ও শহরতলির বিভিন্ন বাজারেই পুজোর কেনাকাটার ভিড় চোখে পড়ল৷ এককথায়, এদিন থেকেই পুজোর বাজার শুরু করে দিল বাঙালি৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement