BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মূল্যবৃদ্ধি ইস্যুতে সংসদে সরব হবে তৃণমূল

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 18, 2016 10:32 am|    Updated: July 18, 2016 10:32 am

Price rise, federalism, other issues raised by Trinamool at all-party meet

জ্যোতির্ময় কর্মকার: স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর মুখোমুখি দাঁড়িয়ে আক্রমণের সুর বেঁধে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই৷ এবার সেই পথেই উত্তাল হবে সংসদও৷ আজ দিল্লিতে বাদল অধিবেশন শুরুর আগে রবিবার নিয়মমাফিক সর্বদলীয় বৈঠকে এই ইঙ্গিতই স্পষ্ট করে দিলেন তৃণমূলের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যসভার মুখ্যসচেতক সুখেন্দুশেখর রায়৷

গত শনিবার দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর ডাকা আন্তঃরাজ্য পরিষদের সম্মেলনে মমতা সাফ জানিয়েছিলেন, শুধুই পশ্চিমবঙ্গই নয়, পাঞ্জাব, কেরল, মহারাষ্ট্র-সহ একাধিক রাজ্য ঋণের ভারে জর্জরিত৷ এই পরিস্থিতিতে হাত গুটিয়ে বসে থাকতে পারে না কেন্দ্র৷ নতুন করে কমিটি গড়ে পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে প্রস্তাব দেন তিনি৷ মমতার প্রস্তাবে একসুরে সহমত জানান একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও৷ এবার ঋণের ইস্যুতে নেত্রীর দাবিকে বাস্তব রূপ দিতে বাদল অধিবেশনে সংসদে ঝড় তুলবেন তৃণমূল সাংসদরা৷ এদিন সেই বক্তব্যই সর্বদলীয় বৈঠকে স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়েছেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সুখেন্দুবাবু৷ একইসঙ্গে লড়াই চলবে নির্বাচনী সংস্কারের ইস্যু নিয়েও৷

ইতিমধ্যেই জ্বালানি তেল-সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনার দাবিতে সংসদে নোটিস দিয়েছে তৃণমূল৷ এছাড়াও সংসদকে এড়িয়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে এফডিআই ঘোষণা, যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপ-সহ বিভিন্ন বিষয়ে বাদল অধিবেশনে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র সংঘাতে নামবেন তাঁরা৷ রাজনৈতিক মহলের একাংশের ব্যাখ্যা, পশ্চিমবঙ্গের সদ্যসমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে বিভিন্ন সময়ে বিজেপির সঙ্গে তৃণমূলের গোপন আঁতাঁতের অভিযোগ তুলেছে বাম-কংগ্রেস জোট৷ তাই সংসদের অধিবেশন শুরু হতেই বিজেপি বিরোধিতা তুঙ্গে তুলে যাবতীয় সমালোচনার জবাব দিতে চাইছেন মমতা৷

এদিকে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে অরুণাচলে আইনি লড়াইয়ে মুখ পোড়ার পর এবার সংসদেও একই ইস্যুতে বিজেপিকে কোণঠাসা করতে তৎপর কংগ্রেস-সহ অন্যান্য বিরোধীরা৷ যদিও এই অধিবেশনে যে কোনও মূল্যে জিএসটি পাস করাতে রীতিমতো মরিয়া সরকার৷ স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এদিনের বৈঠকে যোগ দিয়ে আবেদন করেন, “মানুষের স্বার্থেই প্রয়োজন জিএসটি ৷ সব কিছু সরিয়ে রেখে দেশের স্বার্থকে গুরুত্ব দিন৷” যদিও অ-বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে অন্যায়ভাবে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার চেষ্টা চলছে বলে এদিনের বৈঠকে তোপ দাগেন রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা গুলাম নবি আজাদ৷ সাফ জানিয়ে দেন, “রাজ্যগুলি আর কেন্দ্রের বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারকে বিশ্বাস করতে পারছে না৷” স্বাভাবিকভাবেই একদিকে সরকারের জিএসটি দায়, অন্যদিকে কংগ্রেসের অরুণাচলে সাফল্যের পটভূমিতে বাদল অধিবেশন রীতিমতো উত্তপ্ত হতে চলেছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে