Advertisement
Advertisement

পুজোয় এবার রাজস্থানী সুরে মজল মুদিয়ালি ক্লাব

থিমমেকার দম্পতি শুভদীপ ও সুমি মজুমদারের যুগলবন্দিতে এবার একটুকরো রাজস্থানকে পাওয়া যাবে মুদিয়ালির পুজোপ্রাঙ্গণে৷

Puja Preparation 2016: Mudiali Club
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:October 1, 2016 8:18 pm
  • Updated:October 2, 2016 7:53 pm

পুজো প্রায় এসেই গেল৷ পাড়ায় পাড়ায় পুজোর বাদ্যি বেজে গিয়েছে৷ সেরা পুজোর লড়াইয়ে এ বলে আমায় দেখ তো ও বলে আমায়৷ এমনই কিছু বাছাই করা সেরা পুজোর প্রস্তুতির সুলুকসন্ধান নিয়ে হাজির Sangbadpratidin.in৷ আজ পড়ুন টালিগঞ্জের মুদিয়ালি ক্লাবের পুজো প্রস্তুতি৷

শুভময় মণ্ডল: রাজস্থানের কথা ভাবলেই প্রথমেই যে যে জিনিসগুলি বাঙালির মাথায় ঘোরে সেগুলি হল, ধু ধু মরুপ্রান্তর, রাজস্থানি লোকশিল্প এবং অবশ্যই সোনার কেল্লা৷ আরও এক বৈশিষ্ট্য আছে রাজস্থানের, তা হল রঙের মেলা৷ এইসব কিছুকেই একত্রিত করে এবার পুজোর থিম সাজাচ্ছে দক্ষিণ কলকাতার মুদিয়ালি ক্লাব৷ থিমপুজোয় কার্যত এবছরই হাতেখড়ি মুদিয়ালি ক্লাবের। বরাবরই সাবেকিয়ানায় সেজে ওঠা মুদিয়ালি ক্লাব এবার থিমপুজোয় মেতে উঠেছে। আর ৮২ তম বর্ষে পা দিয়ে মুদিয়ালি ক্লাবের নিবেদন, রাজ ‘দেবী’ স্থান৷ থিমমেকার দম্পতি শুভদীপ ও সুমি মজুমদারের যুগলবন্দিতে এবার একটুকরো রাজস্থানকে পাওয়া যাবে মুদিয়ালির পুজোপ্রাঙ্গণে৷

Advertisement

mudiali-club-3_web

Advertisement

থিমপুজোর শহরে শুভদীপ এবং সুমি মজুমদার এখন বেশ কুলীন শিল্পী৷ তাঁদের সৃজনে এবার রাজস্থানের বেশ কিছু লোকশিল্পকে দেখা যাবে মুদিয়ালিতে৷ মোট তিন রকম লোকশিল্পকে মণ্ডপে ফুটিয়ে তুলেছেন তাঁরা৷ জেমস্টোন পেন্টিং বা রত্নচিত্র ঘরানার ২০০ বছর আগে যাত্রাশুরু৷ এমিথিস, ব্লাডস্টোন, মিট্রিন, গারনেট, টাইগার, অ্যাগেট-সহ বিভিন্ন রত্নের দানা ব্যবহার করে কাচের উপর সাধারণত এই চিত্র আঁকা হয়৷ কৃত্রিম বা ভেসজ কোনও রং ব্যবহার করা হয় না৷ বছরের পর বছর অবিকৃত থাকে এই রত্নচিত্রের রং৷

mudiali-club-2_web

মীনাকারি জলচৌকি ব্যবহার করা হচ্ছে যা রাজস্থানের ভীজ ও গঙ্গৌর উৎসবে ব্যবহৃত হয়৷ রাজস্থানের মীনা উপজাতিরা শৈব৷ দুর্গা এখানে ভবানী রূপে পূজিতা হন৷ জয়পুরে তৈরি রত্নচিত্র দিয়ে মণ্ডপের অন্দরমহল সাজানো হচ্ছে৷ হর-পার্বতীর অভিসার থেকে সংসার, কৈলাসের নানা মুহূর্ত জীবন্ত হয়ে উঠবে এই মণ্ডপের দেওয়ালে৷ সেই সঙ্গে কানে বাজবে রাজস্থানী সুর ও মন্ত্রিত হবে সূর্যমন্ত্র৷

mudiali-club-1_web

বিশেষ দ্রষ্টব্য, রাজপুত ও গুর্জরদের সুর্য উপাসনা সবারই জানা৷ তার প্রতীক হিসাবে মণ্ডপের মুখে থাকছে সূর্যদেব এবং তার বাহন সাতটি ঘোড়া৷ রাজস্থানীদের তিরন্দাজির পারদর্শীতাকে দেখানোর জন্য মণ্ডপের প্রবেশদ্বারে থাকছে বিশাল এক ধনুক৷

mudiali-club-4_web

এইভাবে রাজস্থান এখানে হয়ে উঠছে রাজ ‘দেবী’ স্থান৷ আর প্রতিমাতেও রয়েছে রাজস্থানী লোকশিল্পর ছাপ৷ মৃৎশিল্পী অমিত পালের তৈরি সাবেকি প্রতিমায় ছোঁয়া লেগেছে রাজস্থানের৷ সঙ্গে থাকছে সংগীতশিল্পী গৌতম ব্রহ্ম ও তাঁর জোয়ার ব্যান্ডের থিম সংগীত৷ সবমিলিয়ে মুদিয়ালির এই রাজস্থানী আঙ্গিকের দেবী আরাধনা পুজোপ্রেমীদের কতটা আনন্দ দেয় তা সময়ই বলবে৷

ভিডিওয় দেখে নিন প্রস্তুতি পর্বের ঝলক-

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ