BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

পাক অধিকৃত কাশ্মীর ফেরত চাইল ভারত

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 19, 2016 11:30 am|    Updated: August 19, 2016 11:31 am

An Images

নন্দিতা রায়: এবার সরাসরি অধিকৃত কাশ্মীর ফেরত চেয়ে ইসলামাবাদকে চিঠি লিখল নয়াদিল্লি৷ চিঠিতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, কাশ্মীরের অংশ দখল করে রেখেছে পাকিস্তান৷ তারা অবিলম্বে সেখান থেকে সরে যাক৷ এই একটিমাত্র বিষয়কে ইস্যু করেই ইসলামাবাদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি নয়াদিল্লি৷ পাক বিদেশ সচিব কাশ্মীর নিয়ে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের আহ্বান জানিয়ে ভারতের বিদেশ সচিবকে যে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন, তার জবাবে স্পষ্ট এ কথাই ইসলমাবাদকে জানিয়ে দিল নয়াদিল্লি৷ এর আগে পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের বিদেশ বিষয়ক পারমর্শদাতা সরতাজ আজিজের মৌখিক কাশ্মীর-বৈঠকের আহ্বানে ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল বলেছিলেন, কাশ্মীর নয়, একমাত্র সীমান্ত সন্ত্রাস নিয়েই পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা হতে পারে৷ তবে সচিব পর্যায়ের বৈঠকের আমন্ত্রণের জবাবে কিন্তু ভারত আরও কঠোর কাশ্মীর-বার্তা দিল৷

নয়াদিল্লির পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে ভারতের বিদেশ সচিব পাক বিদেশ সচিবের সঙ্গে কথা বলতে চান বলেই ইসলামাবাদকে চিঠিতে জানানো হয়েছে৷ কাশ্মীর নিয়ে বিদেশ সচিব পর্যায়ের বৈঠক চেয়ে চিঠি লিখে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে ভারতকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল৷ তার জবাবি চিঠিতেই নয়াদিল্লির তরফ থেকে পাক অধিকৃত কাশ্মীর থেকে হঠে যাওয়ার দাবি জানিয়ে মোক্ষম কূটনৈতিক চাল দিয়েছে ভারত৷ একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ‘রেড লাইন’ পার করে কথা বলছেন বলে পাকিস্তানের তরফে সমালোচনারও নয়াদিল্লি কড়া জবাব দিয়েছে৷ যারা ‘রেড লাইন’ পার করার কথা বলছে তারা নিজেরা সে বিষয়টি জানে কি না, পাল্টা প্রশ্ন করেছে নয়াদিল্লি৷ দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক ঠান্ডা লড়াইয়ের. পারদ দিনের পর দিন চড়ছে৷

ভারত যে পাকিস্তানের সঙ্গে কাশ্মীর নিয়ে কোনও কথা বলবে না একথা বারবার বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে৷ বৃহস্পতিবারও সেই একই কথা আবার জানিয়েছেন বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র বিকাশ স্বরূপ৷ কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের কথা বলার কোনও অধিকার নেই, এটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে এদিনও তিনি মন্তব্য করেন৷ কাশ্মীর ছাড়া বাকি সব বিষয়, জম্মু-কাশ্মীরকে লক্ষ্য করে পাকিস্তানের সীমান্ত পারের সন্ত্রাস, সেখানে তাদের জঙ্গি শিবির বন্ধ করা, মুম্বই হামলার দোষীদের শাস্তির বিষয় নিয়েই ভারত আলোচনায় আগ্রহী বলেই নয়াদিল্লির তরফ থেকে চিঠিতে জানানো হয়েছে৷ ভারতের বিদেশ সচিব ইসলামাবাদের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন, এখন পাকিস্তানের জবাব দেওয়ার পালা বলেই মনে করছে নয়াদিল্লি৷ যে সমস্ত বিষয় নিয়ে ভারতের পক্ষ থেকে আলোচনার দাবি জানানো হয়েছে তাতে পাকিস্তানকে বিপাকে ফেলা গিয়েছে বলেই নয়াদিল্লি মনে করছে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement