৩১ চৈত্র  ১৪২৭  বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রী কীভাবে জখম হলেন? নন্দীগ্রামের ঘটনায় বিস্তারিত রিপোর্ট চাইল নির্বাচন কমিশন

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 11, 2021 9:37 pm|    Updated: March 11, 2021 9:39 pm

An Images

শুভঙ্কর বসু: মনোনয়ন জমা দেওয়ার পরই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) জখম হয়েছেন নন্দীগ্রামে। বুধবার সন্ধেবেলা এই ঘটনায় রিপোর্ট চেয়ে পাঠাল নির্বাচন কমিশন (Electiobn Commission)। সূত্রের খবর, রাজ্যের সিইও (CEO) দপ্তর এবং প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, শুক্রবার বিকেল ৫টার মধ্যে বিস্তারিত রিপোর্ট পাঠাতে।ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনকে কড়া বার্তা দিয়েছে দিল্লি। পাশাপাশি অবিলম্বে তারকা প্রার্থীদের নিরাপত্তায় আরও জোর দিতে বলা হয়েছে। সমস্ত ক্ষেত্রে আরও সর্তকতা অবলম্বন করতে বলেছে নির্বাচন কমিশন।

বুধবারের ঘটনার পর বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই দফায় দফায় বৈঠকে বসেন কমিশন কর্তারা। প্রথম দফায় ৩০টি আসনে যে জেলাগুলিতে ভোট হবে এদিন সে সমস্ত জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স হয়। সেখানেই পুলিশ আধিকারিকের আরও সতর্কভাবে কাজ করতে বলা হয়েছে। বিশেষত তারকা প্রার্থীদের প্রচার, জনসভা ও জনসংযোগের সময় নিরাপত্তা দিকে বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে। কোন উপায়ে তাদের বাড়তি নিরাপত্তা আয়োজন হবে সে সংক্রান্ত একটি রূপরেখাও এদিন বেঁধে দিয়েছেন কমিশন কর্তারা। পাশাপাশি নন্দীগ্রামের ঘটনার জেরে বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ অশান্তি ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছে কমিশন। সে কারণে সমস্ত জেলাকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জাওয়ানদের প্রস্তুত রাখতে বলা হয়েছে। কোনও হিংসা অশান্তির ঘটনা ঘটলেই সরাসরি কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে তা মোকাবেলা করতে হবে বলে জেলা গুলিকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাব ও রাজ্য মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক দপ্তরের অন্য অফিসাররা ছাড়াও ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন এডিজি, আইনশৃঙ্খলা (ADG, Law and order)জগমোহন।

[আরও পড়ুন: বঙ্গের নির্বাচনে ব্যস্ত, লোকসভায় দলনেতার দায়িত্ব থেকে অস্থায়ীভাবে সরানো হল অধীরকে]

নির্বাচনী সূচি ঘোষণা পর থেকেই কড়া মনোভাব দেখিয়ে রাজ্যের একাধিক প্রশাসনিক কর্তা রদবদল ঘটিয়েছে কমিশন। কাকতালীয়ভাবে প্রশাসনিক রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্রকে সরিয়ে দেওয়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যেই জখম হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বাভাবিকভাবেই বিষয়টিকে ইস্যু করেছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে আঙ্গুল উঠতে শুরু করেছে। তাই বিষয়টিকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে দেখছে কমিশন। ভবিষ্যতে যাতে এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় তা নিশ্চিত করতে জেলা গুলিকে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘করোনার বিরুদ্ধেও লড়াইয়ের শক্তি জুগিয়েছে এই গ্রন্থ’, ভগবত গীতার প্রশস্তিতে প্রধানমন্ত্রী]

এদিকে, প্রথম পর্বের ভোট প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে শুক্রবারই মেদিনীপুরে যাবেন দুই বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক ও বিবেক দুবে। প্রথম দফায় যে জেলাগুলিতে ভোট, সেসব জেলার শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে দু’দফায় বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে তাদের। পাশাপাশি তারা কিছু এলাকা পরিদর্শনে বেরোতে পারেন বলেও জানা গিয়েছে। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে দু’দফায় ম্যারাথন বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। প্রথম দফায় জেলাশাসক ও পরবর্তীতে পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করবেন পর্যবেক্ষকরা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জখম হওয়ায় পড়ই বিশেষ পর্যবেক্ষকদের এই সফর যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement