BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ইস্টারের বিস্ফোরণে ধৃত আরও ১৬, এখনও আতঙ্কে শ্রীলঙ্কা

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 26, 2019 11:05 am|    Updated: April 26, 2019 11:05 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইস্টার সানডে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরও ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করল শ্রীলঙ্কা পুলিশ। ধৃতদের জেরা করা হচ্ছে। আত্মঘাতী হামলা ও ধারাবাহিক বোমা বিস্ফোরণের আড়াই দিন পর হামলার দায়ভার নিয়েছে ইসলামিক স্টেট জঙ্গি গোষ্ঠী। গত মঙ্গলবার ‘আল আমাক নিউজ এজেন্সি’র মাধ্যমে এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে আইএস। গত মঙ্গলবার ন’জনকে গ্রেপ্তারি করেছিল পুলিশ। বৃহস্পতিবার সেই তালিকায় আরও ১৬ জনের নাম উঠল। গোটা শ্রীলঙ্কা-জুড়ে প্রায় ছ’হাজার তিনশো সেনা দিয়ে তন্নতন্ন করে সন্দেহভাজনদের খোঁজা হচ্ছে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন ব্রিগেডিয়ার সুমিথ আতাপাত্তু।

[“প্রয়োজনে ফের বন্ধু ইমরানের সঙ্গে কথা বলব”, সমালোচনার জবাব মুনমুনের]

অন্যদিকে, প্রেসিডেন্টে মৈত্রীপালা সিরিসেনার নির্দেশ মেনে বৃহস্পতিবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর সহকারী হেমাসিরি ফার্নান্ডো ইস্তফা দিলেন। এর মধ্যেই এএফপি সূত্রে খবর, ফের বিস্ফোরণ ঘটেছে কলম্বোর পূর্ব দিকের একটি শহরে। গত রবিবারের মতো দূর নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ এটি নয়। এই বিস্ফোরণে হতাহতের কোনও খবর নেই। বিস্ফোরণের পরই পুলিশ এলাকার দখল নিয়েছে। তবে এই ঘটনায় নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে দ্বীপরাষ্ট্রে। পুলিশের মুখপাত্র জানিয়েছেন, কলম্বো থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে পুগুদায় ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের পিছনে একটি ফাঁকা জায়গায় বিস্ফোরণটি হয়েছে। তদন্ত চলছে। তবে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে, রবিবারের বিস্ফোরণগুলির মতো এটি নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ নয়।

তবে ভয়াবহ বিস্ফোরণের পর দেশের গির্জার স্বাভাবিক কাজকর্মে ফিরতে সময় লাগবে বলে জানিয়েছে ক্যাথলিক গির্জার সংগঠন। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার কথা ভেবেই গির্জাগুলি আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে। বিশপেরা সিরিসেনা সরকারের কাছে অনুরোধ করেছেন, এই বিস্ফোরণের ঘটনা নিয়ে কেউ যেন কোনও রকম রাজনীতি করার চেষ্টা না করে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, ন’জন আত্মঘাতী জঙ্গি ইস্টার সানডে-র মতো পবিত্র দিনে ধারাবাহিক বিস্ফোরণগুলি ঘটিয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে দেশের প্রভাবশালী ইব্রাহিম পরিবারের ছেলে। অনেকের কথায়, এতদিন কলম্বোর মাহাওয়েলা গার্ডেন্স এলাকার সাদা বাড়িটাকে সম্মান করত সবাই। পরিবারের সদস্যদেরও সামাজিক সম্মান ছিল, প্রতিপত্তি ছিল। কিন্তু রবিবারের ধারাবাহিক বিস্ফোরণের পর বদলে গিয়েছে সব।

[নিরাপত্তায় গলদ, পদ খোয়ালেন শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা সচিব ও পুলিশ প্রধান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement