২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রানওয়েতে নামতে গিয়ে আচমকা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যায়। তারপর সোজা গিয়ে ধাক্কা মারে পাশে থাকা বর্জ্যপদার্থ পরিশোধনাগারের বিল্ডিংয়ে। এর জেরে ভেঙে পড়ে ছোট যাত্রীবাহী বিমানটির সামনের অংশ। চোখের নিমেষে আগুনও ধরে যায়। বিষয়টি দেখতে পেয়ে দৌড়ে যান বিমানবন্দরের কর্মীরা। বিমানে থাকা ৪৩ জন যাত্রীকে সুরক্ষিত অবস্থায় নামিয়ে আনা সম্ভব হলেও মৃত্যু হয় দুই বিমানকর্মীর। বৃহস্পতিবার সকালে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে সাইবেরিয়ার নিঝনিয়ানগারস্ক বিমানবন্দরে।

[আরও পড়ুন- মাঝ আকাশে বোমাতঙ্ক! লন্ডনে জরুরি অবতরণ এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানের]

সাইবেরিয়ার বুরায়াতি প্রদেশের প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, আঙ্গারা বিমান সংস্থার ওই রাশিয়ান যাত্রীবাহী এএন-২৪ বিমানটি প্রতিদিনই যাতায়াত করে। বৃহস্পতিবার সকালে সাইবেরিয়ার উলান-উডে বিমানবন্দর থেকে উড়ান শুরু করেছিল। কিন্তু, নিঝনিয়ানগারস্ক বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করার অনুমতি চায়। আর অবতরণের সময় রানওয়েতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে।

তারপর টারম্যাক থেকে ১০০ মিটার দূরে থাকা বিমানবন্দরের বর্জ্যপদার্থ পরিশোধনাগারের বিল্ডিং-এ সজোরে ধাক্কা মারে। পরে তাতে আগুনও ধরে যায়। বিমানটি থেকে একটি শিশু-সহ ৪৩ যাত্রীকে সুরক্ষিত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। কিন্তু, দু’জন বিমানকর্মীকে আর বাঁচানো যায়নি।

[আরও পড়ুন- তিনতলার জানলা থেকে ছিটকে পড়ল শিশু! দেখুন হাড়হিম করা ভিডিও]

এই ঘটনার পরেই পূর্ব সাইবেরিয়া পরিবহণ দপ্তরের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। তাতে বলা হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। বিমানটি এয়ার সেফটি আইন মেনে উড়ছিল কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মৃত বিমানকর্মীদের পরিচয় জেনে তাঁদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত বিমানটি কেন জরুরি অবতরণ করতে চেয়েছিল সেসম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং