BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সাড়ে চার হাজার বছরের পুরনো সমাধিক্ষেত্রের খোঁজ মিলল মিশরে

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 5, 2019 4:59 pm|    Updated: May 5, 2019 4:59 pm

4,500-year-old burial ground discovered near Egypt's great pyramids.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মিশরের বিখ্যাত গিজা পিরামিডের কাছে সন্ধান পাওয়া গেল সাড়ে ৪ হাজার বছরের পুরনো সমাধিক্ষেত্রের। শনিবার এই সমাধিক্ষেত্রটি খুঁজে বের করে মিশরের পুরাতত্ত্ব মন্ত্রক। খনন কাজ চালানোর সময় ওই সমাধিক্ষেত্রের ভিতর বিভিন্ন রঙের কারুকার্য করা কাঠের কফিন এবং সুন্দর সুন্দর চুনাপাথরের মূর্তি দেখতে পাওয়া গিয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই কফিন ও চুনাপাথরের মূর্তিগুলো কয়েক হাজার বছর আগে ফ্যারাওদের আমলে তৈরি হয়েছিল।

গিজা পিরামিডের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে বিভিন্ন সময়ে প্রচুর সমাধিক্ষেত্র তৈরি করা হয়েছিল। এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে প্রাচীন চুনাপাথরের তৈরি একটি পারিবারিক সমাধিক্ষেত্র। যীশুখ্রিস্ট্রের জন্মের প্রায় আড়াই হাজার বছর আগে পঞ্চম রাজবংশের আমলে এটি তৈরি করা হয় বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন-কলম্বোয় ফিদায়েঁ হামলার আগে কাশ্মীর-কেরলে ভ্রমণ! চাঞ্চল্যকর তথ্য শ্রীলঙ্কার]

এই সমাধিক্ষেত্রটি আবিষ্কারের পর একটি সংবাদসংস্থার একজন চিত্রসাংবাদিককে সেখানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। তিনি গিয়ে ওই সমাধিক্ষেত্রের দেওয়ালে লাগানো কাঠের কাঠামোর উপর বিভিন্ন পশুপাখি ও মানুষের ছবি আঁকা থাকতে দেখেন। সেখানে এই ধরনের প্রচুর ছবি ছাড়া বিভিন ধরনের ভাস্কর্যও ছিল বলে তিনি জানিয়েছেন।

[আরও পড়ুন- কোলে সন্তান নিয়েই বিয়েতে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী, সারলেন বাগদান]

মিশরের পুরাতত্ত্ব মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, এই সমাধিক্ষেত্রটি পঞ্চম রাজবংশের দু’জন খুবই গুরুত্বপূর্ণ মানুষের স্মৃতির উদ্দেশ্যে তৈরি করা হয়েছিল। তার মধ্যে একজন ছিলেন ওই রাজবংশের পুরোহিত ও বিচারক আর অন্যজন ছিলেন ফ্যারাও খাফরে-এর প্রধান সহযোগী। ফ্যারাও খাফরে মিশরের ফ্যারাওদের মধ্যে অন্যতম প্রভাবশালী সম্রাট ছিলেন। গিজা-র তিনটি বিখ্যাত পিরামিডের মধ্যে দ্বিতীয় পিরামিডটি ফ্যারাও খাফরে-এর আমলেই তৈরি করা হয়েছিল। আবিষ্কৃত সমাধিক্ষেত্রের মধ্যে প্রচুর চুনাপাথরের তৈরি শিল্পকর্ম দেখা পাওয়া গিয়েছে যার মধ্যে এটির মালিক, তাঁর স্ত্রী এবং ছেলের মূর্তিও রয়েছে।

গিজা পিরামিডের ডিরেক্টর জেনারেল আশরফ মহি জানান, খ্রীস্টপূর্ব সপ্তম শতাব্দীতে তৈরি হওয়া এই সমাধিক্ষেত্রটি অতীতে বহুবার ব্যবহার করা হয়েছিল বলে খননের সময় প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে