BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আতঙ্কের মাঝে চিনের রাস্তায় পড়ে বৃদ্ধের দেহ, উদ্ধারে এগিয়ে এলেন না কেউই

Published by: Sayani Sen |    Posted: February 1, 2020 8:41 am|    Updated: February 1, 2020 8:41 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফাঁকা ফুটপাতের উপর শুয়ে রয়েছেন বয়স্ক এক ব‌্যক্তি। দেহে প্রাণ নেই। মুখে মাস্ক আর একহাতে ধরা প্লাস্টিকের শপিং ব‌্যাগ। ঘটনা চিনের ইউহানের, যেখান থেকে মারণ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে বলে খবর। ইউহানের একটি আসবাবপত্রের দোকানের সামনের রাস্তায় পড়ে থাকা ওই দেহের ছবি সোশ‌্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে সর্বত্র।

প্রত‌্যক্ষদর্শীদের দাবি, বেশ কিছুক্ষণ ওই ব‌্যক্তির দেহ ওইভাবেই রাস্তায় পড়ে ছিল। ভাইরাসের সংক্রমণ হতে পারে, এই আতঙ্কে পথচারীরা কেউই তাঁর কাছে যাননি। অনেক পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে। এসে পৌঁছয় অ‌্যাম্বুল্যান্সও। অল্প সময়ের মধ্যেই গোটা জায়গাটি পুলিশ ঘিরে ফেলে। হলুদ রঙের একটি সার্জিক‌্যাল ব‌্যাগে দেহটি তুলে, অ‌্যাম্বুল‌্যান্সে চাপিয়ে অন‌্যত্র নিয়ে যাওয়া হয়। পরে যে জায়গায় ওই ব‌্যক্তির দেহ পড়ে ছিল, সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসাবে সেখানে জীবাণুনাশক রাসায়নিক ছড়িয়ে দেওয়া হয়। বছর ষাটের ওই ব‌্যক্তির মৃত্যু সত্যিই করোনা ভাইরাসে হয়েছে কি না, তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে জায়গাটি ইউহান বলেই সন্দেহ প্রবলভাবে বেড়ে গিয়েছে। এদিকে, এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে চিনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫৯ জন।

Coronavirus
অন‌্যদিকে, ব্রিটেনে দু’জনের দেহে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে ইন্দোনেশিয়ার একটি শিল্পাঞ্চলের (চিনা সংস্থা পরিচালিত) কর্মীদের আলাদা করে রাখার ব‌্যবস্থা করা হয়েছে। আমেরিকায় ইতিমধ্যেই জারি হয়েছে লাল সতর্কতা। আমেরিকা এবং জাপানের তরফে তাঁদের বাসিন্দাদের আপাতত চিনে ভ্রমণ না করার পরামর্শ জারি করা হয়েছে। আবার কেনিয়া সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আপাতত চিনে কোনও বিমান পাঠানো হবে না। একই পথে হেঁটেছে ইতালি, ইজরায়েল, উত্তর কোরিয়াও।

[আরও পড়ুন: মিলছে না মাস্ক, করোনা ঠেকাতে মুখে অন্তর্বাস-লেবুর খোসা পরছেন চিনারা]

আর টেক জায়েন্ট অ‌্যাপল, গুগল এবং মাইক্রোসফটের তরফে আপাতত চিনের ভাইরাস আক্রান্ত অঞ্চলে সংস্থার কাজকর্ম বন্ধ রাখা হয়েছে। আবার রাশিয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে চিনের সঙ্গে তাদের দেশের পূর্বাংশে অবস্থিত ৪,৩০০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত বন্ধ রাখবে। প্রসঙ্গত, করোনার মতো কোনও সংক্রামক ভাইরাস চিনের পশু বাজার থেকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে গত বছর নভেম্বরে একটি তথ‌্যচিত্রের সাক্ষাৎকারে আগাম সতর্ক করেছিলেন মাইক্রোসফট কর্তা বিল গেটস। সেই ভাইরাসে লক্ষ লক্ষ মানুষের মৃত্যু  হবে বলেও সাবধান করেছিলেন তিনি। ওই ভাইরাস প্রতিহত করতে এক বছরেরও বেশি সময় লেগে যাবে বলে দাবি করেছিলেন মাইক্রোসফট কর্তা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement