BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নিজেকে ‘কৃষ্ণাঙ্গ’ বলে পরিচয় আমেরিকার ইহুদী অধ্যাপিকার, সত্যি ফাঁস হতেই শাস্তির খাঁড়া

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 5, 2020 2:17 pm|    Updated: September 5, 2020 2:26 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড, জ্যাকব ব্লেককে নির্বিচার গুলির মতো সাম্প্রতিক ঘটনা মার্কিন মুলুকে (USA) কৃষ্ণাঙ্গ আন্দোলনকে ফের উসকে দিয়েছে। তবে এসবেরও আগে শ্বেতাঙ্গ আগ্রাসনের প্রতিবাদ স্বরূপ মার্কিন সমাজে প্রতিষ্ঠিত জনা কয়েক ব্যক্তি নিজেদের ‘কৃষ্ণাঙ্গ’ পরিচয় দিয়ে কাজ করে গিয়েছেন। তেমনই এক অধ্যাপিকার পরিচয় সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসায় একলহমায় শ্রদ্ধার আসন থেকে নামিয়ে দেওয়া হল তাঁকে। জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের (GWU) অধ্যাপিকা জেসিকা ক্রুগের শাস্তি, চলতি সেমেস্টারে তিনি আর কোনও ক্লাস নেবেন না। বিষয়টি নিয়ে বেশ হইচই শুরু হয়েছে সে দেশের শিক্ষামহলে।

US-Black-Prof1

২০১৮ সালে জেসিকা ক্রুগ (Jessica Krug) এই বিশ্ববিদ্যালয়ের আফ্রিকান স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপিকা হিসেবে যোগ দেন। সেসময় তিনি নিজেকে আফ্রিকান বংশোদ্ভূত কৃষ্ণাঙ্গ বলে পরিচয় দিয়েছিলেন। এরপর একাধিকবার এ নিয়ে বয়ান বদলান তিনি। কখনও বলেন, মার্কিন বংশোদ্ভুত কৃষ্ণাঙ্গ, কখনও আবার নিজের শেকড় ক্যারিবিয়ান দ্বীপে বলে উল্লেখ করেন। তবে আফ্রিকান স্টাডিজ নিয়ে জেসিকার কাজে মুগ্ধ বহু পড়ুয়া। তাঁর ক্লাস সকলে খুব আগ্রহ নিয়ে করত।

[আরও পড়ুন: চিন ছেড়ে ভারতে বিনিয়োগ করলে মিলবে পুরস্কার, বাণিজ্যিক সংস্থাগুলিকে বার্তা জাপানের]

সব ঠিকঠাকই চলছিল। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় জেসিকার এক পোস্টেই সব এলোমেলো হয়ে গেল। ওই পোস্ট না করলে হয়ত জেসিকার পরিচয় নিয়ে এমন শোরগোল পড়ত না। পোস্টে জর্জ ওয়াশিংট বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা জানান, তিনি আসলে ইহুদী। কিন্তু আজীবন চোখের সামনে এতটাই কৃষ্ণাঙ্গ বিদ্বেষ দেখেছেন যে সমব্যথী হয়ে নিজেকে তাঁদের প্রতিনিধি বলে মনে করেন এবং সেই পরিচয় বহন করেন।

জেসিকা ক্রুগের এই পোস্টের পর স্তম্ভিত সে দেশের শিক্ষক থেকে শুরু করে পড়ুয়া, সমাজের অন্যান্য বিশিষ্ট মানুষজন। বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে বিবৃতি জারি করে এর তীব্র নিন্দা করা হয়েছে। বলা হয়েছে, নিজের পরিচয় নিয়ে মিথ্যে বলে তিনি নিজের গবেষণাকাজ, অসংখ্য ছাত্রছাত্রীর প্রতি বিশ্বঘাতকতা করেছেন। তাই চলতি সেমেস্টারে তিনি আর ক্লাস নিতে পারবেন না। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখে হয়ত আরও কড়া কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে।

[আরও পড়ুন: নতুন চক্রান্তের ইঙ্গিত! নেপালে ভারত বিরোধী বিক্ষোভে টাকা ঢালছে চিন]

জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠরত ল্যাটিন আমেরিকান স্টাডিজের এক ছাত্রীর কথায়, ”এই খবরে আমি ধাক্কা খেয়েছি। দু, একবার ল্যাটিন ক্লাসে উনি এসেছিলেন। দেখেছিলাম, কী আগ্রহ নিয়ে, কী জ্ঞান নিয়ে ল্যাটিন ইতিহাসের গল্প শোনাচ্ছিলেন আমাদের!” তবে জেসিকাই প্রথম নন, বর্ণবিদ্বেষ বিরোধী আন্দোলনে শামিল এক মার্কিন সমাজকর্মীও নিজেকে কৃষ্ণাঙ্গ বলে পরিচয় দিয়েছিলেন। শোনা যায়, তাঁর প্রতি অসীম শ্রদ্ধাশীল অধ্যাপিকা জেসিকা ক্রুগ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement