BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Taliban Terror: তালিবানের হাতছাড়া তিন জেলা, আফগান বিদ্রোহীদের হামলায় নিকেশ অন্তত ১০০ জেহাদি

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 21, 2021 8:51 am|    Updated: August 23, 2021 8:07 pm

Afghan rebels recapture 3 districts, kill Taliban men | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আফগানিস্তান দখলের পাঁচ দিনের মাথায় প্রবল প্রতিরোধের মুখে তালিবান (Taliban)। আফগানিস্তানের সংবাদমাধ্যম আভিস্কার দাবি, পাবলিক রেজিসট্যান্স ফোর্সের নেতা খেইর মহম্মদের দাবি, বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া গুলির লড়াইয়ে তিন জেলা থেকে পিছু হঠেছে তালিবান। সংবাদ সংস্থার খবর, গুলি যুদ্ধে বেশ কয়েকজন তালিবান জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে।

বিশ বছর আগের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার কৌশল বদলেছে তালিবান। সোজাসুজি শহর নয়। গ্রাম থেকে শহর ঘিরেছে তারা। কিন্তু উত্তর আফগানিস্তান এখনও তাদের অধরা। এবারও এই অঞ্চলে তাদের প্রবল প্রতিরোধের মুখে পড়তে হচ্ছে। ইতিমধ্যে পঞ্জশির প্রদেশে (পাঁচটি সিংহের উপত্যকা) আহমেদ শাহ মাসুদের ছেলে আহমেদ মাসুদেরর সঙ্গে হাত মিলিয়ে আমরুল্লা সালেহ বিরোধীদের সংগঠিত করার কাজে ব্যস্ত। এই পরিস্থিতিতে অধরা উত্তর আফগানিস্তান দখলে মরিয়া তালিবান।

[আরও পড়ুন: তালিবানি অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে টানা ১০ বছর পুরুষ সেজে ছিলেন এই মহিলা]

আফগান সংবাদসংস্থার দাবি, বৃহস্পতিবার ভোর থেকে কার্যত গুলির লড়াই শুরু হয় পাহাড় ঘেরা পোল-হে-হেসার, দে সালহা এবং বানুতে। মূলত নর্দান অ্যালায়েন্স এই এলাকায় তালিবানকে রুখতে ময়দানে নামে। তারপর লড়াইয়ের তীব্রতা আরও বাড়ে। রাত পর্যন্ত যা খবর, তাতে বাঘলান প্রদেশের এই তিন জেলা থেকে পিছনে হঠতে বাধ্য হয়েছে তালিবান জঙ্গিরা। পাবলিক রেজিসট্যান্স ফোর্সের দাবি, এই গুলির লড়াইয়ে কমপক্ষে ১০০-র বেশি তালিবান জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে।

কূটনৈতিক মহলের মতে, ‘নতুন’ আফগানিস্তান গঠনের স্বপ্নে এই ঘটনা তালিবানের কাছে ধাক্কা। যদিও উত্তর আফগানিস্তানের তাদের ব্যর্থতা সম্পর্কে কোনও প্রতিক্রিয়া নেই তালিবান নেতাদের তরফে। কাবুল থেকে পাওয়া খবর, বিষয়টি এখন এড়ানোর চেষ্টা করছে তারা। এদিকে, শুক্রবারও শান্তির ঠিকানার খোঁজে মরিয়া সাধারণ আফগানরা। এদিন হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিতরে-বাইরে মিলিয়ে কমপক্ষে ১০ হাজার মানুষ ভিড় করেছিলেন বলেন সংবাদসংস্থার দাবি। সাধারণ মানুষদের শহরের দিকে ঠেলতে এদিন দফায় দফায় বিমানবন্দর চত্বর থেকে গুলির শব্দ শোনা গিয়েছে। সকালে এবং বিকেলে তালিবান বন্দুক থেকে বেরিয়েছে গুলির আওয়াজ। এই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ এক জার্মান নাগরিক। কূটনৈতিক মহলের দাবি, গত ১৫ আগস্টের পর উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে এই প্রথম কোনও বিদেশি আফগানিস্তানে গুলিবিদ্ধ। রাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মার্কিন সেনাকেও শূন্যে গুলি চালাতে হয় বলে সূত্রের দাবি।

এদিকে, দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নয় জনকে খুন করেছিল তালিবান জঙ্গিরা। একমাস আগের এই ঘটনা এদিন প্রকাশ্যে এল। অ্যামেনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দাবি, গজনির এই গ্রামে গত জুলাই মাসে হামলা করেছিল তালিবান। সেই ঘটনায় ওই নয় জনের মৃত্যু হয় বলে দাবি মানবাধিকার সংস্থার। এই টানাপোড়েনের মধ্যে আফগানিস্তানকে ঘিরে বাড়ছে রাজনৈতিক তৎপরতাও।

খুব ভেবে চিন্তে আফগানিস্তান সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিতে একযোগে আমেরিকা ও চিনকে বার্তা দিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এই প্রথম আফগান পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। তাঁর মতে, “আফগানদের ভবিষ্যৎ নিয়ে ছেলেখেলা করার সময় এটা নয়। তাই সবার কাছে অনুরোধ করছি, সবাই ভাবনাচিন্তা করে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিন।” ঘর গোছাচ্ছে ভারতও। রাতে কাতারের বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর।

[আরও পড়ুন: দেরাদুনের সেনা অ্যাকাডেমিতে প্রশিক্ষিত ‘শেরু’ই এখন শীর্ষ তালিবান নেতা! বিস্মিত সতীর্থরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে