BREAKING NEWS

৮ শ্রাবণ  ১৪২৮  রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আফগানিস্তানে কাজ করতে গিয়ে সংঘর্ষে নিহত পুলিৎজার প্রাপ্ত ভারতীয় চিত্র সাংবাদিক

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: July 16, 2021 1:16 pm|    Updated: July 16, 2021 1:19 pm

Afghanistan: Indian photojournalist Danish Siddiqui dies in Kandahar | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন সেনাবাহিনী সরতেই উত্তপ্ত হতে শুরু করেছে আফগানিস্থান (Afghanistan)। ফের মাথাচাড়া দিচ্ছে তালিবান জঙ্গিগোষ্ঠী। একাধিক জায়গায় আফগান সেনার সঙ্গে সংঘর্ষও শুরু হয়েছে। আর সেরকমই একটি সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে প্রাণ হারালেন পুলিৎজার (Pulitzer Prize) পুরস্কারজয়ী ভারতীয় চিত্র সাংবাদিক দানিশ সিদ্দিকি। এমনটাই জানানো হয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজের পক্ষ থেকে।

সংবাদসংস্থা রয়টার্সের হয়ে পেশার খাতিরে যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্থানের স্পিন বলদাক এলাকায় কাজ করছিলেন দানিশ। মাঝমধ্যেই আফগান সেনা-তালিবানদের সংঘর্ষের ছবি, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্থানের ছবি তুলেও পাঠাচ্ছিলেন। কিন্তু সেই কাজের ফাঁকেই সংঘর্ষের মধ্যে এবার প্রাণ হারালেন দানিশ। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজের পক্ষ থেকে টুইটে জানানো হয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে কান্দাহার জেলার স্পিন বলদাক এলাকায় সংবাদসংস্থা রয়টার্সের হয়ে ছবি তোলার কাজে নিযুক্ত ছিলেন দানিশ সিদ্দিকি। কিন্তু সেখানেই একটি সংঘর্ষে প্রাণ হারালেন ভারতীয় এই চিত্র সাংবাদিক। যদিও এখনও পর্যন্ত ভারতের পক্ষ থেকে এই ঘটনা নিয়ে সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়নি। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালেই বিখ্যাত পুলিৎজার পুরস্কার জিতেছিলেন দানিশ। মায়ানমারে রোহিঙ্গাদের নিপীড়নের ছবি তুলে এই পুরস্কার পেয়েছিল রয়টার্সের চিত্র সাংবাদিকের একটি দল। সেই দলেই ছিলেন দানিশ।

 

[আরও পড়ুন: ‘আত্মায় চিরস্থায়ী ক্ষত তৈরি হয়েছে’, অ্যান্টিগায় ফিরে ভারতীয় গোয়েন্দাদের কাঠগড়ায় তুললেন চোকসি]

উল্লেখ্য, আমেরিকা সেনা সরানোর সিদ্ধান্ত নিতেই আফগানিস্তানের (Afghanistan) পরিস্থিতির ক্রমশ অবনতি হচ্ছে। সে দেশের ৮৫ শতাংশ এলাকার দখল নিয়ে ফেলেছে বলে দাবি করেছে তালিবানরা। ইতিমধ্যে কান্দাহারের পর রাজধানী কাবুলের আরও কাছাকাছি চলেও এসেছে তালিবান জঙ্গিগোষ্ঠী। ঘাঁটি শক্ত করছে লস্কর-ই-তইবাও। এমন পরিস্থিতিতে আর ঝুঁকি নিতে চায় না ভারত। তাই কান্দাহার দূতাবাস থেকে ইতিমধ্যে ৫০ জন ভারতীয় কূটনীতিবিদ ও অন্যান্য কর্মীদের দেশে ফিরিয়ে আনাও হয়েছে। এদিকে, তালিবানদের বাড়বাড়ন্তের জন্য ইতিমধ্যে পাকিস্তানের দিকে অভিযোগের আঙুলও তুলেছেন আফগানিস্তানের ভাইস-প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ। সরাসরি তালিবানদের সাহায্য করছে পাক বায়ুসেনা। এক টুইটবার্তায় সেকথাই বলেছেন তিনি। ফলে সবমিলিয়ে ওই এলাকায় পরিস্থিতি আরও জটিল হওয়ার পথেই।

[আরও পড়ুন: ফের চোখ রাঙাচ্ছে চিন, নাকু লা-র কাছে এবার স্থায়ী ক্যাম্প তৈরি বেজিংয়ের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement