১০ শ্রাবণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘আত্মায় চিরস্থায়ী ক্ষত তৈরি হয়েছে’, অ্যান্টিগায় ফিরে ভারতীয় গোয়েন্দাদের কাঠগড়ায় তুললেন চোকসি

Published by: Biswadip Dey |    Posted: July 16, 2021 8:47 am|    Updated: July 16, 2021 8:47 am

Mehul Choksi says kidnapping by Indian agencies left permanent scars on soul | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় গোয়েন্দারাই তাঁকে অপহরণ করে ডোমিনিকায় (Dominica) নিয়ে গিয়েছিল বলে দাবি করলেন পলাতক হীরে ব্যবসায়ী মেহুল চোকসি (Mehul Choksi)। জামিন পেয়ে বৃহস্পতিবারই তিনি অ্যান্টিগায় (Antigua) ফিরেছেন। আর তারপরই ভারতীয় গোয়েন্দাদের কাঠগড়ায় তুলতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় চোকসি দাবি করেন, তাঁর উপরে যে অত্যাচার করা হয়েছে তা তাঁকে মানসিক ও শারীরিক উভয় দিক থেকেই ক্ষতিগ্রস্ত করেছে তো বটেই। তাঁর আত্মায় চিরস্থায়ী ক্ষতচিহ্ন রেখে গিয়েছে।

ঠিক কী বলেছেন চোকসি? তাঁর কথায়, ‘‘আমি বাড়ি ফিরে এসেছি। কিন্তু যে অত্যাচার আমার উপরে করা হয়েছে তা আমার উপরে শারীরিক ও মানসিক দিক দিয়ে চিরস্থায়ী ক্ষতচিহ্ন রেখে গিয়েছে। বলা যায়, আমার আত্মার উপরেই চিরস্থায়ী ক্ষতচিহ্ন তৈরি হয়েছে।’’ তাঁর অভিযোগ, তাঁর উপরে প্রবল অত্যাচার করা হয়েছে। এমনকী ইলেকট্রিক শকও দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের সূচনা পর্বে পৌঁছে গিয়েছে বিশ্ব’, সতর্ক করলেন WHO প্রধান]

গত ২৫ মে অ্যান্টিগা থেকে নিখোঁজ হয়ে যায় চোকসি। বেআইনি ভাবে ডোমিনিকায় অনুপ্রবেশের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু চোকসি বরাবরই বলে এসেছেন, তাঁকে অপহরণ করা হয়েছিল। জোর করে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ডোমিনিকায়। করা হয়েছিল অকথ্য অত্যাচার। নিজের সেই অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে চোকসি বলেন, ‘‘আমি কখনও কল্পনাও করতে পারিনি আমার সমস্ত ব্যবসা বন্ধ করে দিয়ে এভাবে আমার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে। আর ভারতীয় গোয়েন্দারা আমাকে অপহরণ করবেন। এমন যে হতে পারে তা আমি আগে শুনেছিলাম বটে। তবে ভাবতে পারিনি সত্যিই এতটা হতে পারে। যেখানে অ্যান্টিগায় আমি আমার সমস্ত আইনি অধিকার প্রয়োগ করে আইনত লড়াই করছিলাম।’’

ভারতীয় গোয়েন্দাদের সঙ্গে তাঁর সহযোগিতা না করার অভিযোগও উড়িয়ে দিয়ে পলাতক ব্যবসায়ীর দাবি, ‘‘আমি বহুবার বলেছি, আমার শরীরের কারণে আমার পক্ষে দূরে ভ্রমণ করা সম্ভব নয়। তবে তাঁরা চাইলে এখানে আসতে পারেন। কিংবা ‘জুম’ বা অন্য কোনও উপায়েও আমার সঙ্গে কথা বলতে পারেন। আমি সব সময়েই রাজি। কিন্তু তা না করে এভাবে অমানবিক আচরণ করে অপহরণ করা হল, এটা অভাবনীয়।’’ সময়মতো তিনি যে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করে ছাড়বেন, সেই দাবিও করেছেন চোকসি।

[আরও পড়ুন: থাবা চওড়া করছে Taliban, এবার জেহাদি গোষ্ঠীর কবজায় পাক-আফগান সীমান্তের সেনাঘাঁটি]

তিন বছর আগে অর্থাৎ ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে দেশ ছাড়েন চোকসি। তার কয়েকদিনের মধ্যেই এই হীরে ব্যবসায়ীর নামে আর্থিক তছরুপ ও প্রতারণার অভিযোগ সামনে আসে। পরে জানা যায়, অ্যান্টিগুয়ার নাগরিকত্ব নিয়ে সেই দ্বীপেই আস্তানা গেড়েছেন মেহুল চোকসি। সেদিন থেকে এখনও পর্যন্ত চোকসি আর ভারতে পা রাখেননি। কিন্তু সম্প্রতি অ্যান্টিগুয়া থেকে কিউবা যাওয়ার পথে তাঁকে ডোমিনিকায় আটক করা হয়। জেলবন্দি অবস্থায় তাঁর ছবি প্রকাশ্যে চলে আসে। এরপরই চোকসিকে দেশে ফেরাতে উদ্যোগী হয় কেন্দ্রও। যদিও এখনও পর্যন্ত সেই প্রয়াস সফল হয়নি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement