২২  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৭ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বেজিংয়ের ফের দৌরাত্ম্য বাড়ছে সংক্রমণের! লকডাউন বাড়ল আরও ১০ জায়গায়

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 15, 2020 10:34 am|    Updated: June 15, 2020 12:36 pm

Again Corona infection increase in Beijing, China LockDown 10 More places

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শেষ হয়েও হইল না শেষ। বেজিংয়ের (Beijing) দক্ষিণ প্রান্ত ছেড়ে এবার করোনা ভাইরাসের হানা উত্তর-পশ্চিম প্রান্তে। ফলে দ্রুত হাইদিয়ান জেলার (Haidian district) ১০ টি এলাকায় লকডাউন ঘোষণা করল শি জিনপিং সরকার।

সংবাদ সংস্থা এপিএফ সূত্রে খবর, চিনের রাজধানী বেজিংয়ের উত্তর-পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত হাইদিয়ান জেলা। সেখানেরই একটি পাইকারি বাজারে দেখা দিয়েছে সংক্রমণ। মারণ ভাইরাসের আতঙ্কের জেরে দ্রুত পার্শ্ববর্তী স্কুল-কলেজগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এই জেলার ১০টি এলাকায় লকডাউন ঘোষণা করে প্রশাসন। শনিবারই রাজধানী বেজিংয়ে নতুন করে ৬ জন বাসিন্দার শরীরে করোনা ভাইরাসের সন্ধান মেলে। এরপরই আক্রান্তের সংখ্যা সর্বাধিক সংখ্যা ছুঁল। এই শহরের আধিকারিক লি জুনজি (Li Junjie) একটি সাংবাদিক বৈঠকের আয়োজন করেন। তিনি জানান, “এই প্রদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম পাইকারি বাজার থেকেই ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। তাই সোমবার থেকে সেই বাজার বন্ধ রাখা হয়েছে। বাজার সংলগ্ন এই প্রদেশের ১০টি স্থানে লকডাউন জারি করা হল।”

[আরও পড়ুন:মহাকাশ আর মহাসমুদ্রে পাড়ি দিয়ে বারবার শিরোনামে এই মার্কিন মহিলা, জানুন তাঁর কথা]

তবে চিনের আঁতুরঘড় ইউহানে সংক্রমণের গতিতে হ্রাস টানার পর ফের কেন বেজিংয়ে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে তার উত্তর এখনও অজানা। তবে এই দ্বিতীয় বৃহত্তম পাইকারী বাজারের আক্রান্তদের শরীর থেকে লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আক্রান্তরা বাজারের বাইরে কোথায় কোথায় গিয়েছিলেন তাও জানার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। পার্শ্ববর্তী প্রদেশগুলি থেকে সাধারণের বেজিংয়ে প্রবেশেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। বিশেষভাবে সতর্ক করা হয়েছে এলাকার বয়স্ক ও শিশুদের। তবে আশঙ্কার বিষয় হল বেজিংয়ে যাঁরা মারণ রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন তাঁদের কারও শরীরে কোনও উপসর্গ নেই। ফলে সংক্রমণ ছড়ালে তা বোঝার উপায় নেই বিশেষজ্ঞদের।

[আরও পড়ুন:গত দু’মাসে শনিবার করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সর্বোচ্চ, সিঁদুরে মেঘ দেখছে চিন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে