৭  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ইউক্রেন যুদ্ধের আবহেই মস্কোয় ভারতের ‘সুপার স্পাই’ ডোভাল

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 18, 2022 9:52 am|    Updated: August 18, 2022 9:52 am

Ajit Doval meets Russia’s NSA, discusses security | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গতকাল, বুধবার পশ্চিমবঙ্গে গ্রেপ্তার করা হয়েছে দুই আল কায়দা জঙ্গিকে। আগেও দেশের একাধিক জায়গায় পুলিশের জালে পড়েছে জেহাদি সংগঠনটির বেশ কয়েকজন সদস্য। বাংলাদেশ হয়ে এই জেহাদি নেটওয়ার্ক যে আফগানিস্তান পর্যন্ত ছড়িয়েছে তা প্রকাশ্যে এসেছে তদন্তে। এহেন পরিস্থিতিতে বুধবার মস্কোয় রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ভারতের ‘সুপার স্পাই’ অজিত ডোভাল।

ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে মঙ্গলবার রাশিয়া পৌঁছন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল (Ajit Doval)। মার্কিন চোখ রাঙানি সত্ত্বেও ডোভালের এই সফর স্পষ্ট করে দিয়েছে যে কৌশলগত ও সামরিক কারণে নয়াদিল্লির কাছে মস্কো কতটা গুরুত্বপূর্ণ। পশ্চিমের প্রবল কূটনৈতিক চাপ সত্ত্বেও রাশিয়াকে ‘একঘরে’ করার পক্ষপাতী নয় মোদি সরকার। বুধবার রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা নিকোলাই পেত্রোশেভের সঙ্গে বৈঠকে বসেন ডোভাল। এই বিষয়ে এক বিবৃতিতে মস্কো জানিয়েছে, “নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সহযোগিতা-সহ একাধিক ইস্যুতে দু’জনের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। কৌশলগত ক্ষেত্রে ভারত ও রাশিয়ার মধ্যে বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে। এই সম্পর্ক আরও মজবুত করতে দুই দেশের নিরাপত্তা পরিষদের মধ্যে আলোচনা চলবে।”

[আরও পড়ুন: টুইটারে ভিন্নমতাবলম্বীদের অনুসরণের ‘অপরাধ!’ ৩৪ বছরের জেল সৌদি তরুণীকে]

সূত্রের খবর, ডোভাল ও পেত্রোশেভের আলোচনার কেন্দ্রে ছিল আফগানিস্তান ও ইউক্রেন। আফগান ভূমে যাতে কোনওমতেই আল কায়দার মতো জেহাদি শক্তি ভারতবিরোধী ষড়যন্ত্র নাএ করতে পারে সেই ব্যাপারে নিশ্চিত হতে মস্কোর প্রতিপত্তিকে কাজে লাগাতে চায় নয়াদিল্লি এবং ‘গিভ অ্যান্ড টেক’-এর নীতি মেনে ইউক্রেন ইস্যুত রুশ তেল কিনে মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে ভোঁতা করতে মদত দেবে ভারত। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, মঙ্গলবার ব্যাংককে ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর স্পষ্ট জানান, রাশিয়া থেকে অশোধিত তেল কেনা চলবে।

উল্লেখ্য, কাবুলে তালিবানের ক্ষমতা দখলের পর গত বছরের অক্টোবরে মস্কোয় তালিবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলে বিদেশমন্ত্রকের যুগ্মসচিব জে পি সিংহের নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধিদল। ওই বৈঠকে মোট ন’টি দেশ অংশ নিয়েছিল। তার পরে আফগানিস্তানের সুরক্ষা পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা স্তরের বৈঠকের প্রস্তাব দিয়েছিল নয়াদিল্লি। তারই ভিত্তিতে গত মে মাসে তাজিকিস্তানের রাজধানী দুশানবেতে আফগানিস্তান (Afghanistan) নিয়ে আলোচনায় বসে চিন, রাশিয়া, ভারত, ইরান, তাজিকিস্তান, কিরঘিজস্তান, কাজাখস্তান ও উজবেকিস্তান। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, ওই বৈঠকে হাজির ছিলেন না পকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মইদ ইউসুফ। আঞ্চলিক নিরাপত্তা আলোচনার চতুর্থ দফায় আফগানিস্তানে শান্তি বজায় রাখতে আঞ্চলিক সহযোগিতা গড়ে তোলার বার্তা দিয়েছিলেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল।

[আরও পড়ুন: আধিপত্য বজায় রাখতেই তাইওয়ানে সংঘাত উসকে দিচ্ছে আমেরিকা, তোপ পুতিনের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে