১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রোহিঙ্গাদের মোবাইল বিক্রি নিষিদ্ধ করল বাংলাদেশ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 24, 2017 2:59 pm|    Updated: July 11, 2018 3:33 pm

Bangladesh imposes mobile phone ban on Rohingya

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের মোবাইল বিক্রি ও ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল সরকার। টেলিকমিউনিকেশন সংস্থাগুলিকে এই বিষয়ে সতর্ক করে দিল দেশের সরকার। জানানো হয়েছে, কোনও রোহিঙ্গাকে যেন মোবাইল বিক্রি না করা হয়। হিন্দুস্তান টাইমস এই খবর জানিয়েছে। মায়ানমার থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশকারী কোনও রোহিঙ্গাকে মোবাইল হ্যান্ডসেট বিক্রি করলে জরিমানার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। চারটি শীর্ষ সংস্থাকে এই বিষয়ে সতর্ক করেছে সে দেশের সরকার।

সম্প্রতি মায়ানমার থেকে প্রায় ৪ লক্ষ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে বলে খবর। সংবাদ সংস্থা এএফপি সূত্রে খবর, নিরাপত্তা সংক্রান্ত কারণেই এই নিষেধাজ্ঞা। অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের দেশের নিরাপত্তার কাছে চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছে সরকার। রোহিঙ্গাদের সিম কার্ড বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। টেলিকম মন্ত্রকের সিনিয়র অফিসার এনায়েত হোসেন জানিয়েছেন, রবিবার থেকে এই নিষেধাজ্ঞা বলবত হচ্ছে। এমনিতেই সে দেশে উপযুক্ত পরিচয়্পত্র না দেখালে কাউকে সিম কার্ড দেওয়া হয় না। দেশে জঙ্গি কার্যকলাপ রুখতে উপযুক্ত পরিচয়পত্র ছাড়া কাউকে সিম দেওয়া হয় না বলে জানিয়েছে টেলিকম মন্ত্রক। মন্ত্রক সূত্রে খবর, মানবিকতার খাতিরে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে জায়গা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সেই সঙ্গে বাংলাদেশের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে মোবাইল ফোনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।

[অবশেষে রোহিঙ্গাদের নিয়ে নীরবতা ভাঙলেন সু কি]

২৫ অগাস্টের পর প্রায় ৪ লক্ষ ৩০ হাজার রোহিঙ্গা মায়ানমার ছেড়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। বাংলাদেশের ত্রাণ শিবিরগুলিতে তারা আশ্রয় নিয়েছে। ভারতের আশঙ্কা, বাংলাদেশে স্থান সঙ্কুলানের কারণে সীমান্ত পেরিয়ে এদেশেও অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করছে রোহিঙ্গারা। রাজনাথ সিংও জানিয়েছেন, ভারতে রোহিঙ্গাদের প্রবেশ অবৈধ। কয়েকদিন আগেই মায়ানমারের প্রশাসনিক প্রধান সু কি বার্তা দেন, ভেরিফিকেশনের পর রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরে আসায় কোনও বাধা নেই। কেন্দ্রও সুপ্রিম কোর্টকে স্পষ্ট জানিয়েছে, মায়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ভারতে থাকতে দেওয়া দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার কাছে বিপজ্জনক। বক্তব্যের স্বপক্ষে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের রিপোর্টকে ঢাল করে কেন্দ্র জানায়, পাক জঙ্গি সংগঠন ও আইএসআই চক্রের সঙ্গে রোহিঙ্গাদের একাংশের যোগসাজশ রয়েছে। তবে কেন্দ্র একথাও বলেছে, রোহিঙ্গাদের জলে ফেলে দেওয়া হবে না বা গুলি করে হত্যা করাও হবে না। কিন্তু এদেশে তাদের থাকতে দেওয়া হবে না। রোহিঙ্গাদের মায়ানমারে ফিরে যেতে হবে।

[সব রোহিঙ্গাকে জঙ্গি ভাবা ঠিক নয়, কেন্দ্র বিরোধী সুর চড়ালেন মমতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে