৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আর ১১ দিন বাদে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। সেই উপলক্ষে নির্বাচনী জনসভা করতে গিয়েছিলেন আফগানিস্তানের বর্তমান রাষ্ট্রপতি আশরাফ ঘানি। কিন্তু, সেখানে ভয়াবহ বিস্ফোরণে জেরে প্রাণ হারাল কমপক্ষে ২৬ জন। জখম হয়েছে আরও ৪২ জন। মঙ্গলবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে কাবুলের দক্ষিণ দিকে অবস্থিত পারওয়ান প্রদেশের রাজধানী চারিকরে। এক আত্মঘাতী জঙ্গি মোটরবাইকে চালিয়ে সভাস্থলে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি গোষ্ঠী এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি।

[আরও পড়ুন: সংখ্যালঘু বলেই খুন করা হয়েছে, অভিযোগ পাকিস্তানে মৃত হিন্দু যুবতীর পরিবারের]

আফগান প্রশাসনের এক মুখপাত্র নাসরাত রাহিমি জানান, আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে লড়াই করতে নেমেছেন বর্তমান রাষ্ট্রপতি আশরাফ ঘানিও। তাই মঙ্গলবার চারিকরে
একটি নির্বাচনী সভা করতে গিয়েছিলেন তিনি। আর সেই সময় এক আত্মঘাতী জঙ্গি এই বিস্ফোরণ ঘটায়। এর ফলে রাষ্ট্রপতির কোনও ক্ষতি না হলেও কমপক্ষে ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। জখম হয়েছেন আরও ৩২ জন।

পারওয়ান প্রদেশের পুলিশ প্রধান মহম্মদ মাফুজ ওয়ালিজাদা বলেন, ‘যখন সভায় আসা মানুষ পুলিশ ক্যাম্পে ঢুকছিলেন তখনই এই বিস্ফোরণ হয়। আচমকা একজন বৃদ্ধ মোটরবাইক চালিয়ে হাইওয়েতে এসে বিস্ফোরণ ঘটনায়। এর ফলে অনেক মানুষের মৃত্যু হয়েছে।’

[আরও পড়ুন: ‘জাকির প্রসঙ্গে মোদির সঙ্গে কথা হয়নি’, হঠাৎ ভোলবদল মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর]

পারওয়ান হাসপাতালের প্রধান আবদুল কাসিম সানজিন জানান, হতাহতদের মধ্যে অনেক মহিলা এবং শিশু ছিল। এদের মধ্যে বেশিরভাগই সাধারণ নাগরিক। পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

বিস্ফোরণস্থল থেকে ফিরে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন আফগান রাষ্ট্রপতি। টুইট করে জানান, সাধারণ নাগরিকদের টার্গেট করে ঐক্য ভাঙতে চাইছে তালিবান। যখন সবাই শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য আলোচনা করছে তখন জঙ্গি হামলা চালিয়ে তা থামাতে চাইছে তারা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং