BREAKING NEWS

১২ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ২৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘করোনা মোকাবিলায় ডাহা ফেল’, পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গের নিশানায় ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 8, 2020 2:05 pm|    Updated: June 8, 2020 2:44 pm

Brazil President failed to combat Coronavirus, accusses climate activist Greta Thunberg

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ডোনাল্ড ট্রাম্পের পর কিশোরী পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গের রোষানলে এবার ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। করোনা মোকাবিলায় ডাহা ফেল ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট, ভিডিও কনফারেন্সে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সটান একথা বলে দিল গ্রেটা। বলসোনারো অবশ্য এ বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ। বিশ্বখ্যাত কিশোরীর মন্তব্যকে তেমন গুরুত্ব দিচ্ছেন না বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

সুইডিশ কিশোরী গ্রেটা থুনবার্গ। মাত্র ১৭ বছরেই নিজের পরিচয় তৈরি করে নিয়েছে সে নিজে। শুধুমাত্র পরিবেশ বাঁচাতে তার আন্দোলন নাড়িয়ে দিয়েছে বিশ্বের তাবড় রাষ্ট্রনেতাদের। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে গ্রেটার বাকযুদ্ধের কথা জানেন সবাই। কৈশোরের সাহসেই সে বিশ্বের সর্বশক্তিমান রাষ্ট্রনায়কের চোখে চোখ রেখে তাঁর ভুল ধরিয়ে দিতে পেরেছে বোধহয়। এই অল্প বয়সেই বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পরিবেশ সম্মেলনে গ্রেটার আমন্ত্রণ প্রায় বাঁধা।

[আরও পড়ুন: ‘তাড়াহুড়ো নয়, ধীরে ধীরে লকডাউন উঠলেই অর্থনীতির পক্ষে মঙ্গল’, বলছে সমীক্ষা]

করোনা আবহে পরিবেশ রক্ষায় তার ভাবনাচিন্তা এবং কাজ সেভাবে প্রকাশ্যে না এলেও, এবার ফের বিস্ফোরক হয়ে উঠল গ্রেটা থুনবার্গ। মারণ ভাইরাসের কামড়ে জর্জরিত ব্রাজিলের দুর্দশার জন্য সে সোজা প্রেসিডেন্টকেই দায়ী করে বসল। ভিডিও কনফারেন্সে সাংবাদিক সম্মেলনে গ্রেটার মন্তব্য – ”প্রেসিডেন্ট মানুষের জীবন বাঁচাতে ব্যর্থ হয়েছেন। তার ফলস্বরূপ আমরা চোখের সামনে এত মৃত্যু দেখছি, যা আগেই রুখে দেওয়া যেত।” বিশ্বের করোনা তালিকায় এই মুহূর্তে তৃতীয় স্থানে ব্রাজিল। সামনে শুধু রাশিয়া আর আমেরিকা। গোটা দক্ষিণ আমেরিকায় একমাত্র ব্রাজিলের অবস্থাই এতটা খারাপ। তার কারণও আছে। প্রথমদিকে প্রেসিডেন্ট বলসোনারো নোভেল করোনা ভাইরাসকে ‘লিটল ফ্লু’ বলে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করেছিলেন। যার ফল ভুগতে হচ্ছে বলে মনে করছেন ভুক্তভোগীরাই।

[আরও পড়ুন: কঠোর লকডাউনেই মিলল সাফল্য, মাত্র ৩ মাসে পুরোপুরি করোনামুক্ত নিউজিল্যান্ড]

তবে মহামারী মোকাবিলায় ব্যর্থতার ভার যে শুধু জাইর বলসোনারোরই, তেমনটা মনে করছে না গ্রেটা থুনবার্গ। তার মতে, বিশ্বের আরও অনেক দেশের সরকারই ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করছে না। করোনার কোপ পড়েছে ব্রাজিলের আমাজন জঙ্গলেও। সেখানে চিকিৎসা ব্যবস্থা ততটা সুবিধাজনক নয়। তাই সেই এলাকার মানুষজনের জন্য গ্রেটা এই মুহূর্তে তহবিল সংগ্রহে নেমেছে। যে অর্থ সঞ্চয় হবে, তা দিয়ে আমাজনের বাসিন্দাদের জন্য ওষুধ পাঠাবে গ্রেটা ও তার বন্ধুরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে