BREAKING NEWS

৩১ আশ্বিন  ১৪২৮  সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

CPEC’র মাধ্যমে পাকিস্তানকে কবজা করছে চিন, জিনপিংয়ের সাগরেদ খোদ ইমরান খান

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 26, 2020 9:26 pm|    Updated: July 26, 2020 9:26 pm

China plans to control Pak's politics, economy via CPEC

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানকে কবজা করাই এখন পাখির চোখ চিনের (China)। আর বেজিংয়ের সেই স্বপ্নপূরণের হাতিয়ার CPEC (China Pakistan Economic Corridor)। এই প্রকল্পের মাধ্যমে পাকিস্তানের (Pakistan) আধুনিকীকরণের পাশাপাশি ইসলামাবাদ ক্রমশ চিনের হাতের পুতুলে পরিণত হবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সম্প্রতি এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। যেখানে বলা হয়েছে, ২০২৫ সালের মধ্যে পাকিস্তানকে হাতের পুতুল পরিণত করতে চাইছে বেজিং। এর ফলে একদিকে চিনের অর্থনীতির বাজার যেমন বড় হবে। তেমনই ভারতের উপর চাপ তৈরি করা অনেকটাই সহজ হবে।

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, বহুদিন ধরে চিন পাকিস্তানের উপর কবজা করতে চাইছে। কিন্তু তা বারবার সেই চেষ্টা বিফল হয়েছে। শেষপর্যন্ত চিনের হাতের পাঁচ হয়ে দাঁড়ায় চিন পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর (CPEC)। এই প্রকল্পের বাস্তবায়ন হলে ইসলামাবাদের বিদ্যুৎ ও পরিকাঠামোর বিষয়টি সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করবে CPEC কর্তৃপক্ষ। যা বকলমে চালাবে চিন। আর এই বেজিংয়ের এই প্রস্তাবেব বিরোধিতা করেছিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। এরপরই তাঁকে সরিয়ে ক্ষমতায় আসেন পাক সেনাবাহিনীর হাতের পুতুল ইমরান খান (Imran Khan)। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, পাকিস্তানের সা্র্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতার বদলে এই চুক্তি মেনে নেন ইমরান। এরফলে ২০২৫ সালের মধ্যে পাকিস্তান (Pakistan) সরকারের কলকাঠি নাড়বে চিন (China)। কিন্তু কেন পাকিস্তানের উপর রাজনৈতিকভাবে কবজা করতে চাইছে চিন?

[আরও পড়ুন : গদি বাঁচাতেই দল ভাঙার ছক কষছেন ওলি, অভিযোগ নেপালের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী প্রচণ্ডর]

উপমহাদেশীয় এলাকায় কর্তৃত্ব ফলানো মূল লক্ষ্য বেজিংয়ের। আর তার জন্য পাকিস্তান, নেপাল, ভূটানকে হাতের মুঠোয় রাখতে চাইছেন জিনপিং। আবার এই চাল সফল হলে ভারতকেও বিপাকে ফেলা সহজ হবে। তবে দুর্বল অর্থনীতির যেসমস্ত দেশ চিনের এই ফাঁদে পা দিয়েছে, তাঁদের অর্থনীতি চিরকালের মতো নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ফলে চিনের সামনে হাত পেতে থাকা ছাড়া তাদের আর কোনও গতি নেই। খুব শীঘ্রই পাকিস্তানেরও তেমন পরিস্থিতি হতে চলেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

[আরও পড়ুন : মালয়েশিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, মৃত কমপক্ষে ২৪ জন রোহিঙ্গা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement