২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘মহামারী এখনও যায়নি, বিধিনিষেধ ভুললেই আগের মতো অবস্থা হতে পারে’, সতর্ক করল WHO

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: February 12, 2022 11:37 am|    Updated: February 12, 2022 11:44 am

Corona Pandemic is not over yet, says WHO's Soumya Swaminathan | Sangbad Pratidin

ফাইল চিত্র।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এখনই কোভিড অতিমারী শেষ হচ্ছে না। করোনা ভাইরাসের আরও নয়া রূপ আসতে পারে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তথা ‘WHO’-র বার্তা, আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই করোনার নতুন রূপ বা ভ্যারিয়েন্ট হাজির হবে। এবং তা ডেল্টার মারণ ক্ষমতাকেও ছাড়িয়ে যেতে পারে।

Corona Pandemic is not over yet, says WHO's Soumya Swaminathan

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিজ্ঞানী সৌম্যা স্বামীনাথন (Dr Soumya Swaminathan) শুক্রবার বলেন, ‘‘আমরা করোনাভাইরাসকে বিবর্তিত হতে দেখেছি, পরিবর্তিতও হতে দেখেছি। তাই আমরা জানি, এই ভাইরাসের আরও রূপ থাকবে। উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো রূপও থাকবে। তাই আমরা এখনও অতিমারীর শেষে আসিনি।’’ ডঃ সৌম্যা স্বামীনাথন বলছেন, অতিমারী চলে গিয়েছে, এই গুজবে কান দিয়ে সতর্কতা ছাড়বেন না। করোনার (Coronavirus) নতুন ভ্যারিয়েন্ট যে কোনও সময় জন্মে যেতে পারে। আর আমাদের আবার আগের পরিস্থিতিতে ফিরে যেতে হতে পারে। তাই এখন কোনওভাবেই সতর্কতা বন্ধ করা যাবে না।

[আরও পড়ুন: ৯ ঘণ্টার বৈঠকেও কাটল না মেঘ, ভেস্তে গেল ইউক্রেন-রাশিয়া শান্তি আলোচনা]

WHO’র প্রধান বিজ্ঞানী বলছেন,”গোটা বিশ্বে করোনার মোট সংক্রমণ যখন ১০০ পেরোয়নি তখনও আমরা সতর্ক করেছিলাম। তখন যদি রাষ্ট্রনেতারা আমাদের কথা শুনত, তাহলে এই পরিস্থিতি হত না। কিন্তু তখন কেউ আমাদের কথা শোনেনি।” এরপরই সৌম্যা স্বামীনাথনের সতর্কবার্তা, বিধিনিষেধ না শুনলে আগামী দিনে ফের আগের পরিস্থিতিতে ফিরে যেতে হতে পারে আমাদের।

[আরও পড়ুন: করোনাবিধি নিয়ে আরও তীব্র বিক্ষোভ, বিপর্যস্ত কানাডা-আমেরিকা সীমান্ত বাণিজ্য]

উল্লেখ্য, WHO’র বক্তব্য, আপাতত বিশ্ব থেকে অতিমারী বিদায়ের কোনও সম্ভাবনা নেই। বরং কোভিড-১৯-এর আরও নতুন স্ট্রেনের আবির্ভাব ঘটতে চলেছে। যা ওমিক্রনের থেকে আরও বেশি ভয়ংকর। ২০২০ সালে ডেল্টা (Delta Varient) ভ্যারিয়েন্টকে ‘ভয়ংকর’ আখ্যা দিয়েছিল WHO। কারণ এটি আলফা প্রজাতির থেকে ৫০ শতাংশ বেশি সংক্রামক। এরপর গত বছর মাথাচাড়া দেয় ওমিক্রন। যা আরও দ্রুত হারে ছড়াতে থাকে। এবার আরও ভয়াবহ প্রজাতির আবির্ভাবের ইঙ্গিতও দিয়ে রাখলেন বিশেষজ্ঞরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে