BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বন্ধ গাড়িতে সঙ্গম! দম আটকে মৃত্যু যুগলের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 21, 2018 1:22 pm|    Updated: September 16, 2019 4:23 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভালবাসা নাকি স্থান-কাল-পাত্র বোঝে না। আবেগের বাঁধ যখন ভেঙে যায়, তখন কিছুই খেয়াল থাকে না। কিন্তু পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতির খেয়াল যে একটু রাখতেই হত। তাহলে আর বেঘোরে প্রাণটি যেত না জার্মান যুগলের। প্রাথমিক তদন্তের পর এমনটাই মনে করছে পুলিশ। কী এমন ঘটেছে ওই যুগলের সঙ্গে? বন্ধ গাড়িতে ইঞ্জিন চালু রেখে যৌনতায় মেতেছিলেন তাঁরা। সেই অবস্থাতেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন দু’জনে।

[বিমানে এসির সামনে অন্তর্বাস শুকিয়ে নিচ্ছেন তরুণী, ভাইরাল ভিডিও]

কয়েকদিন আগে পুলিশের কাছে দু’টি পৃথক নিখোঁজের অভিযোগ আসে। নিখোঁজ ছিলেন ৩৯ বছরের ব্যক্তি ও ৪০ বছরের মহিলা  দুই নিখোঁজের খোঁ করতে গিয়েই এই চাঞ্চল্যকর ঘটনার সাক্ষী হন গোয়েন্দারা। পশ্চিম জার্মানির একটি কমার্শিয়াল কমপ্লেক্সের পিছনের গ্যারেজে দু’জনের মৃতদেহ গাড়ির ভিতরে আবিষ্কার করে পুলিশ। সম্পূর্ণ নগ্ন অবস্থায় ছিল ওই যুগলের দেহ। গাড়ির লক খুলে দেহ দু’টি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। জানা গিয়েছে, শরীরে কার্বন-ডাই-অক্সাইডের পরিমাণ বেড়ে যাওয়াতেই মৃত্যু হয়েছে যুগলের।

[স্বামীর ১০ ডলারের ভ্যালেন্টাইনস গিফটে ৬৪ লক্ষের জ্যাকপট জিতলেন স্ত্রী]

প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের ধারণা, বন্ধ গাড়িতে যৌনক্রিয়ায় লিপ্ত হয়েছিলেন ওই যুগল। শরীর গরম রাখতে গাড়ির ইঞ্জিন চালু রেখেছিলেন তাঁরা। কিন্তু বেশিক্ষণ ইঞ্জিন চালু রাখার ফলে গাড়ির ভিতরে কার্বন-ডাই-অক্সাইডের পরিমাণ বেড়ে যায়। যার জেরে শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু হয় দু’জনের। এদিকে যুগলের এই সম্পর্কের কথা তাঁদের পরিবারের কেউ জানতেন না। বাড়ি থেকে বেরনোর ২৪ ঘণ্টা পরও না ফেরায় পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিল দু’জনের পরিবার। বিষয়টি প্রকাশ্যে আশার পর বাকরুদ্ধ হয়ে যান তাঁরা। দুই পরিবারের স্বার্থেই যুগলের পরিচয় গোপন রেখেছে পুলিশ। পূর্ণ তদন্ত হলেই সত্যিটা জানা যাবে বলে আশা গোয়েন্দাদের।

[মাতৃত্বের নজিরবিহীন নমুনা, রুপান্তরকামীর স্তন্যদানেই প্রাণ বাঁচল শিশুর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement