BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘জঘন্য, স্বার্থপর, ভয়ংকর’, লাগামহীন ভাষায় কমলার বিরুদ্ধে বিষোদগার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 13, 2020 4:04 pm|    Updated: August 13, 2020 4:04 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শালীনতা নিয়ে কোনওকালেই তেমন মাথা ঘামাননি মার্কিন ধনকুবের ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রেসিডেন্ট পদে বসেও সেই স্বভাব পালটায়নি তাঁর। মঙ্গলবার, ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ভাইস প্রেসিডেন্ট পদের প্রার্থী কমলা হ্যারিসকে অত্যন্ত কুরুচিকর ভাষায় আক্রমণ করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: প্রস্তুতকারী সংস্থার সঙ্গে মোটা অঙ্কের চুক্তি, দ্রুত ভ্যাকসিন তৈরিতে তৎপর আমেরিকাও]

ভোটারদের মন পেতে এক সভায় ট্রাম্প বলেন, “কমলা জঘন্য, স্বার্থপর ও ভয়ংকর। তিনি প্রায়ই মিথ্যে কথা বলেন। তাঁর উদ্দেশ্য হচ্ছে কর বাড়ানো ও আপনাদের স্বাস্থ্য পরিষেবা কেড়ে নেওয়া।” শুধু তাই নয়, এর আগে এক মহিলাকে ভাইস প্রেসিডেন্ট করলে অনেক পুরুষই অপমানিত বোধ করবেন বলেও মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প। ফক্স স্পোর্টস রেডিওতে ফোনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিনে, “‌জো বিডেন একজন মহিলাকে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে লড়াই করার জন্য নির্বাচিত করায় পুরুষরা মুখ ফেরাতে পারেন।” বিশ্লেষকদের মতে, ভারতীয় বংশোদ্ভূত তথা রাজনৈতিক বিচক্ষণতার জন্য হ্যারিসের সুনাম রয়েছে। এছাড়া, কৃষ্ণাঙ্গ ভোটব্যাঙ্ক তাঁর দিকে ঝুঁকে থাকতে পারে। তবে, তিনি যখন ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ছিলেন ও সান ফ্রান্সিসকোর ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি হিসেবে কাজ করছিলেন তখন তাঁর কিছু সিদ্ধান্তে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছিলেন আমেরিকান কৃষ্ণাঙ্গরা। যদিও সেই ভাঙন কিছুটা রোধ করতে পেরেছেন কমলা বলেই মনে করছেন অনেকে।
ফলে, ক্যালিফর্নিয়া থেকে সেনেটে নির্বাচিত কমলাকে বেঁচে দক্ষিণপন্থী রিপাবলিকানদের মোক্ষম জবাব দিয়েছেন জো বিডেন। আর তাতেই চাপে পড়েছেন ট্রাম্প।

উল্লেখ্য, জামাইকান ও ভারতীয় বাবা-মার সন্তান কমলা ডেমোক্র্যাট দলের এক তারকা প্রার্থী ছিলেন। ২০১৭ সালে প্রথম অ-শ্বেতাঙ্গ মহিলা সেনেটর হিসেবে ক্যালিফর্নিয়া থেকে নির্বাচিত হন কমলা। তার আগে সানফ্রান্সিস্কোর ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি ও ক্যালিফর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল পদে ছিলেন। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অন্যতম প্রধান সমালোচকও তিনি। কমলাকে নিয়ে পাঁচ জন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী প্রেসিডেন্ট লড়াইয়ে নেমেছিলেন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন বিডেন এবং কমলা। এবার তাঁরা যৌথভাবে লড়বেন রিপাবলিকানদের বিরুদ্ধে। অন্য দিকে, রিপাবলিকান দলের তুরুপের তাস এখনও ডোনাল্ড ট্রাম্প-ই। ফলে প্রচারে তাঁর প্রখর ট্রাম্প-বিরোধী স্বরই প্রধান অস্ত্র হবেন কমলা বলেই মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: প্রস্তুতকারী সংস্থার সঙ্গে মোটা অঙ্কের চুক্তি, দ্রুত ভ্যাকসিন তৈরিতে তৎপর আমেরিকাও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement