২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  ক্ষমতার নিরিখে তিনিই বিশ্বে পয়লা নম্বর ব্যক্তি৷ প্রভাব প্রতিপত্তিও আর কারও থেকে কম নয়৷ তবুও তাঁকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘খিল্লি’ কিছুতেই কমছে না৷ যৌনকর্মীর সঙ্গে সেলফি, কিম্বা অশালীন ইঙ্গিত করে বারংবার সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার শিকার হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ এবার, পায়ে টয়েলট পেপার জড়িয়েই বিমানে ওঠার ১৮ সেকেন্ডের ভিডিও ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রাম্পকে নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক৷ টুইটার, ফেসবুকে ঘুরছে এই ভিডিও৷

[‘কাফের বলেই ধর্ষণ করা হত আমাদের’]

মাত্র ১৮ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, এক টুকরো টয়লেট পেপার পায়ে জড়িয়ে দিব্বি এয়ারফোর্স ওয়ানে উঠে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ বাঁ পায়ের জুতোয় জড়ানো লম্বা সাদা রঙের টয়লেট পেপার৷ বিমানের সিঁড়িতে দাঁড়িয়ে অনুগামীদের হাত নেড়ে বিদায়ও জানান তিনি৷ মিনেপোলিস-সেন্ট পল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এই ঘটনার ভিডিও ক্যামেরাবন্দি করে রাখেন তাঁরই অনুগামীরা৷

[রুশ-ভারত এস-৪০০ চুক্তি নিয়ে কী প্রতিক্রিয়া আমেরিকার?]

 

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হতেই মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়৷ নেটিজেনরাও পেয়ে যান ‘হাসি-ঠাট্টা’র নয়া খোরাক৷ তবে, ট্রাম্পের ভিডিওটিতে টয়লেট পেপার বলে চালানো হলেও, সাদা রঙের কাগজটি আদৌ টয়লেট পেপারই কি না তা স্পষ্ট নয়৷ প্রশ্ন উঠছে প্রেসিডেন্টের মতো গুরুত্বপূর্ণ একজন ব্যক্তির পায়ে টয়লেট পেপার লেগে আছে দেখেও কেন নিরাপত্তা কর্মীরা কিছুই জানালেন না? তবে, এটাই প্রথম নয়, বিমানে ওঠার আগে ট্রাম্প এর আগেও একাধিকবার বিড়ম্বনায় পড়েছিলেন৷ গত ফেব্রুয়ারিতেই বিমানে ওঠা মাত্রই হাওয়ায় তাঁর চুল ওড়ার একটি দৃশ্যও ভাইরাল হয়ে পড়ে৷ তার আগে বিমানে ওঠার আগে স্ত্রীর হাত ধরা নিয়েও চূড়ান্ত বিভ্রান্তি দেখা দেয়৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং