১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  রবিবার ১৮ নভেম্বর ২০১৮ 

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও দীপাবলি ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  রবিবার ১৮ নভেম্বর ২০১৮ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী দু’মাসের মধ্যে আমেরিকায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে মধ্যবর্তী নির্বাচন৷ যাকে ২০২০-র প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে সেমিফাইনাল বলেই উল্লেখ করা হচ্ছে৷ সেই নির্বাচনেও রুশ হ্যাকার হানার আশঙ্কা করছে মার্কিন গুপ্তচর সংস্থাগুলি৷ তবে ২০১৬-র পুনরাবৃত্তি রুখতে তৎপর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ নির্বাচনের আগেই এই বিষয়ে একটি সরকারি নির্দেশিকা জারি করতে চলেছেন তিনি৷ অর্থাৎ মার্কিন মধ্যবর্তী নির্বাচনে যে বা যাঁরা দখলদারির করার চেষ্টা করবে তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তি গ্রহণের পথ খুলে রাখছে আমেরিকায়৷

[বাণিজ্য করতে চায় ভারত! দাবি তুলে সাড়া ফেললেন ট্রাম্প]

হোয়াইট হাউসের এক শীর্ষ আধিকারিক জানান, ”এই নির্দেশিকাই হ্যাকিং দখলদারি বা হ্যাকিং আটকানোর একমাত্র পথ হতে পারে না৷ তবে একটা বিষয় স্পষ্ট, এবার আর সহ্য করা হবে না৷ দোষীদের যথাযোগ্য শাস্তি দেওয়া হবে৷” এখানেই শেষ নয় তিনি আরও জানান, ”এবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট অনেক বেশি সতর্ক৷ দেশের বিভিন্ন প্রশাসনিক বিভাগের পাশাপাশি, প্রতিটি প্রদেশকে সতর্ক করা হয়েছে৷ বলা হয়েছে কোনও বিদেশি নাগরিকের সন্দেহভাজন গতিবিধি দেখতে পেলেই সঙ্গে সঙ্গে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের৷ বিদেশী শক্তিকে প্রতিহত করে দেশকে সুরক্ষিত করতে তৎপর তিনি৷” সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশিকা পৌঁছে গিয়েছে মার্কিন গুপ্তচর সংস্থা সিআইএ, জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা, হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ, ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্স বিভাগের কাছে৷

[হাফিজ ইস্যুতে চুপ, পেশোয়ার হামলার ১৩ জঙ্গিকে ফাঁসির সাজা পাকিস্তানের]

উল্লেখ, ২০১৬-র মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হ্যাকারদের কলকাঠি নাড়ার অভিযোগ উঠেছে৷ বলা হয়েছে, বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জয় নিশ্চিত করতে প্রতিপক্ষের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হ্যাক করেছে রাশিয়া৷ ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনী ওয়েবসাইট থেকে তথ্য ফাঁস করা হয়েছে৷ সেই সংক্রান্ত মামলা এখনও বিচারাধীন মার্কিন আদালতে৷ ১২ জন রুশ আধিকারিককে চিহ্নিত করেছে মার্কিন ডিপার্টমেন্ট অফ জাস্টিস৷ যদিও এমন অভিযোগ আগেই খারিজ করে দিয়েছে পুতিন প্রশাসন৷ এমনকি রাশিয়ার পাশে দাঁড়িয়েছেন খোদ বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং