BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

জঙ্গিদের না সামলালে সাহায্য বন্ধ, পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি ট্রাম্পের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 19, 2017 4:11 am|    Updated: September 18, 2019 4:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রতি বছর লক্ষ লক্ষ ডলার আর্থিক সাহায্য দেওয়া হচ্ছে। এর বিনিময়ে উন্নয়ন দূরের কথা সন্ত্রাসবাদীদের বাড়বাড়ন্ত হচ্ছে। পাকিস্তানের সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে এমনই পর্যবেক্ষণ ডোনাল্ড ট্রাম্পের। মার্কিন প্রেসিডেন্টের হুঁশিয়ারি অবিলম্বে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে সবরকম সাহায্য বন্ধ করে দেওয়া হবে।

[শূকরের রক্তে ভেজা গুলিতে জঙ্গি নিকেশের দাওয়াই ট্রাম্পের, শুরু বিতর্ক]

হাফিজ সইদকে নিয়ে চূড়ান্ত নাটক, শেষপর্যন্ত মুক্ত হয় ছাব্বিশ এগারোর মূল চক্রী ভারতকে নিয়ম করে শাসানি দিচ্ছে। পাশাপাশি হাক্কানি নেটওয়ার্কও ডানা মেলছে পাকিস্তান-আফগানিস্তান সীমানায়। তালিবানরা নতুন করে শক্তি দেখাচ্ছে। পাকিস্তানে সন্ত্রাসবাদের বাড়বাড়ন্ত হলেও নওয়াজ শরিফ প্রশাসন কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। চোখ বন্ধ করে আছেন নয়া পাক প্রধানমন্ত্রী আব্বাসি। জমানা বদলের পরও পাকিস্তানে জঙ্গিদের দৌরাত্ম্য আর সহ্য করতে রাজি নয় আমেরিকা।  সেই মনোভাব আরও একবার স্পষ্ট করে দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের সাফ কথা এবার জঙ্গি দমনে ব্যবস্থা না নিলে পাকিস্তানে অর্থ সাহায্য বন্ধ করে দেওয়া হবে। তাঁর সংযোজন সন্ত্রাসবাদের স্বর্গরাজ্য পাকিস্তান। দিনের পরদিন পাক ভূখণ্ডকে ব্যবহার করে অশান্তি ছড়িয়ে যাচ্ছে জঙ্গি সংগঠনগুলি। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই বক্তব্য যে ফাঁকা আওয়াজ নয় তা কিছু দিন আগেই টের পেয়েছে পাকিস্তান। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নিচ্ছে আব্বাসি প্রশাসন তা দেখতে দুই মার্কিন আধিকারিককে পাকিস্তানে পাঠান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

[জম্মু ও কাশ্মীরে সেনার ফের সাফল্য, খতম ২ জঙ্গি]

ওবামা জমানার শেষ দিক থেকে পাকিস্তানের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক ক্রমশ অবনতি হতে থাকে। অভিযোগ পাক আশ্রয়ে নিরাপদে ছিল ৯/১১-র মূল চক্রী ওসামা বিন লাদেন। পাক সরকারের অজান্তেই নিরাপদ সে ঘাটিতে ঢুকে তাকে নিকেশ করে ওবামার সেনা। ক্ষমতায় আসার পর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একইভাবে সুর চড়িয়েছেন ট্রাম্পও। মাস দু’য়েক আগে হোয়াইট হাউসে দাঁড়িয়ে তিনি পাকিস্তানকে কড়া বার্তা দিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সঙ্গে নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, সন্ত্রাসবাদীরা কোনওভাবে যাতে পাক ভূখণ্ড ব্যবহার না করতে পারে তা নিশ্চিত করতে হবে। দেওয়াল লিখন পড়ে ফেললেও সহজে মচকাচ্ছে না পাকিস্তান। সে দেশের বিদেশ মন্ত্রকের এক অফিসার ট্রাম্পের এই মনোভাব সেভাবে আমল দিতে রাজি নন। তাঁর বক্তব্য, জঙ্গি দমনে জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছে পাকিস্তান।  ট্রাম্পের এই গোলার জবাবে পাকিস্তান বলছে ভারতের ভাষায় কথা বলছে আমেরিকা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement