BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পাকিস্তানে হিন্দু বৃদ্ধকে নির্যাতন, প্রতিবাদের ঝড়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 13, 2016 2:29 pm|    Updated: June 13, 2016 3:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইফতারের আগে খাবার বিক্রি করছিলেন তিনি। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল এমনটাই। আর এর জেরেই অশীতিপর বৃদ্ধের উপর নেমে এল চরম পুলিশি নির্যাতন। পাকিস্তানে গোকল দাস নামে এক হিন্দু বৃদ্ধের উপর নির্যাতনে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে নেট-দুনিয়ায়।

ঘটনা দক্ষিণ সিন্ধু প্রদেশের এক প্রত্যন্ত গ্রামের। ইফতারের আগে সেখানে খাবার বিক্রি করছিলেন বলে ওই বৃদ্ধের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে। রমজান মাসে সূর্যাস্তের পরই খাবার খান ধর্মপ্রাণ ইসলাম ধর্মালম্বী মানুষ। সেই খাবারই বিক্রি করছিলেন তিনি। তবে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, ইফতারের আগে তিনি খাবারও খেয়েছিলেন। এ ঘটনা যিনি চাক্ষুষ করেন, তিনি আলি হুসেন নামে এক কনস্টেবল। তাঁরই নির্যাতনের শিকার হন ওই বৃদ্ধ। শুধু তিনি নন, বৃদ্ধকে নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত জওর থানার হাউস অফিসার বচল কুয়েজিও। তিনি ওই বৃদ্ধকে মাটিতে ফেলে মারধরের নির্দেশ দেন। পরে চাপে পড়ে ওই পুলিশ অফিসারকে গ্রেফতার করতে বাধ্য হয় পাক-প্রশাসন।

রক্তমাখা নির্যাতিত বৃদ্ধের ছবি ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে নেট-দুনিয়ায়। হিন্দু  বৃদ্ধের উপর এই অত্যাচারে সরব হয়েছেন সকলে। গোকল দাশের নির্যাতনে দোষীদের শাস্তি চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ক্যাম্পেনেরও আয়োজন করা হয়েছিল। এই ক্যাম্পেনেই কেন হিন্দুদের উপর এই আক্রমণ চলছে, সে প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা।

পাকিস্তানের এ ঘটনা অবশ্য বিছিন্ন কিছু নয়। ভারত ও বাংলাদেশেও ছবিটা একইরকম। বাংলাদেশে হিন্দুদের উপর মৌলবাদীদের আক্রমণ অব্যাহত। মুক্তমনা ব্লগার থেকে শুরু করে যে আক্রোশের সাম্প্রতিক শিকার নিত্যরঞ্জন পান্ডে নামে এক আশ্রম কর্মী। তা নিয়েও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছিল। বাংলাদেশের এক সংগঠনের পক্ষ থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কাছে এ ব্যাপারেও সাহায্যও চাওয়া হয়েছে। এদিকে ভারতের উত্তর প্রদেশের কায়রানা গ্রামেও অত্যাচারে হিন্দুরা ঘরছাড়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। হিন্দুদের উপর সামগ্রিক আক্রমণের প্রতিবাদেই ঝড় উঠেছে নেট-দুনিয়ায়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement