BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তিকে মদত দেওয়ার অভিযোগ, মার্কিন প্রতিনিধির তাইওয়ান সফরে ক্ষুব্ধ চিন

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 17, 2020 5:56 pm|    Updated: September 17, 2020 5:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এক মাস আগে মার্কিন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর তাইওয়ান সফরের পরে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল বেজিং। নির্বাচনে জেতার জন্য ট্রাম্প প্রশাসন নিজেদের নীতি বদলাচ্ছে বলেও অভিযোগ জানিয়েছিল। এবার মার্কিন প্রতিনিধি কিথ ক্রাচের আসন্ন তাইওয়ান (Taiwan) সফরের কথা শুনে ক্ষোভে ফেটে পড়ল শি জিনপিংয়ের প্রশাসন। আমেরিকা বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তিগুলিকে মদত দিচ্ছে বলেও অভিযোগ জানাল।

বৃহস্পতিবার ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন (Wang Wenbin) বলেন, ‘আমেরিকার আন্ডার সেক্রেটারি কিথ ক্রাচের তাইওয়ান সফরের তীব্র বিরোধিতা করছে চিন। এই ধরনের পদক্ষেপ তাইওয়ানের বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তিগুলি আগ্রাসী মনোভাবকে উৎসাহ দেবে বলেই আমরা মনে করি। ক্রাচের এই সফর অখণ্ড চিনের আদর্শকে গুরুতর আঘাত দেবে। এর ফলে আমেরিকার সঙ্গে চিনের সম্পর্কও খারাপ হবে। সময় এলে তাইওয়ানের শান্তি বিনষ্ট করার জন্য মার্কিন প্রশাসনকে যোগ্য জবাব দেবে বেজিং।’

[আরও পড়ুন: আন্তর্জাতিক মহলের চাপ! রোহিঙ্গা নির্যাতনের কথা স্বীকার করে তদন্তের ঘোষণা মায়ানমারের ]

মার্কিন স্বরাষ্ট্রদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার তাইওয়ানের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি লি তেং-হুইয়ের শেষকৃত্যে যোগ দিতে তাইপে যাচ্ছেন আন্ডার সেক্রেটারি কিথ ক্রাচ (Keith Krach)। এর পাশাপাশি তাইওয়ানের বিভিন্ন প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করার কথা রয়েছে তাঁর।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগস্টের ১০ তারিখ চিনের আপত্তি উড়িয়ে তাইওয়ান সফরে গিয়েছিলেন মার্কিন স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যালেক্স আজার। তাইপে গিয়ে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে গণতান্ত্রিক তাইওয়ানের প্রতি ট্রাম্প প্রশাসনের জোরালো সমর্থন রয়েছে বলে জানান৷ তাইওয়ানের স্বাস্থ্য ও বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে করোনা মহামারীর মোকাবিলা করতে তাইওয়ানের পদক্ষেপকে বিশ্বের অন্যতম সেরা হিসেবে উল্লেখ করেন। আজার তাইওয়ানের খোলামেলা, স্বচ্ছ ও গণতান্ত্রিক সমাজের ভূয়সী প্রশংসাও শোনা যায় আমেরিকার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মুখে।

[আরও পড়ুন: নতুন সংঘাতের ইঙ্গিত! নৈনিতাল এবং দেরাদুনকেও নিজেদের ভূখণ্ড বলে দাবি নেপালের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement