BREAKING NEWS

২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

পাকিস্তানের ২৬২ পাইলটের লাইসেন্সই ভুয়ো, ইউরোপে ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ PIA’র বিমান

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 1, 2020 1:56 pm|    Updated: July 1, 2020 2:48 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানের বিমানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, সে দেশের ৪০ শতাংশ বিমানচালকের লাইসেন্সই ভুয়ো। তাঁরা কখনও কোনও পরীক্ষাতেই বসেননি। অথচ দিব্য পাকিস্তান আন্তর্জাতিক এয়ারলাইন্সের (PIA) বিমান ওড়াচ্ছেন। বিষয়টি সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসে আন্তর্জাতিক মহল। এবার যাত্রী সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে আগামী ছয় মাসের জন্য ইউরোপে নিষিদ্ধ হল পাকিস্তান আন্তর্জাতিক এয়ারলাইন্সের উড়ান। তবে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্য নয়, ইউরোপের এমন দেশগুলিতে PIA’এর বিমান চলাচলে কোনও নিষেধাজ্ঞা নেই।

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (European Union) এয়ার সেফটি এজেন্সি (EASA)এ বিষয়ে নির্দেশিকা জারি করেছে। তাতেই ইউরোপের একাধিক দেশে পাকিস্তানের সংস্থার বিমান চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। PIA-এর তরফে টুইট করে এই কথা জানানো হয়। তবে EASA’র সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তাঁরা আবেদন করবেন বলেও জানিয়েছে। পাশাপাশি এ নিয়ে ইউরোপের বিমান সুরক্ষা সংস্থার সঙ্গে আলোচনাও চলছে বলে খবর।

[আরও পড়ুন: হংকং নিয়ে বিতর্কিত বিল পাশ করল চিন, পালটা তোপ আমেরিকার]

করোনা আবহে আপাতত একাধিক আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা রয়েছে। কিন্তু তার মধ্যেও অনেকে পাকিস্তান থেকে ইউরোপ ফিরতে এই বিমান সংস্থার টিকিট কেটেছিলেন। আপাতত ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের এই সিদ্ধান্তে তাঁদের কপালে চিন্তার ভাঁজ গভীর হচ্ছে। যদিও তাঁদের টিকিটের সম্পূর্ণ মূল্য ফেরত দেওয়া হবে বলে খবর। কিন্তু আচমকা কেন এমন সিদ্ধান্ত নিল EASA?

[আরও পড়ুন: সাঁড়াশি আক্রমণের ছক! এবার লাদাখ সীমান্তে বাড়তি ফৌজ মোতায়েন করছে পাকিস্তানও]

প্রসঙ্গত, ২২ মে পাকিস্তানে বড়সড় বিমান দুর্ঘটনা ঘটে। সেই দুর্ঘটনার তদন্তে নেমে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। সে দেশে বিমানমন্ত্রী গুলাম সারওয়ার খান জানান, পাকিস্তানে আপাতত ৮৬০ জন সক্রিয় পাইলট আছেন। তাঁদের মধ্যে ২৬২ জন নিজেরা পরীক্ষায় বসেননি। তাঁদের বিমান চালানোর ন্যূনতম অভিজ্ঞতাও নেই। বিমানমন্ত্রীর কথায়, ‘প্রায় ৪০ শতাংশ পাইলটের লাইসেন্স ভুয়ো।’ এরপরই যাত্রী সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই EASA এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement