১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্যাবার জেটের মতোই পরিণতি পাক হানাদার বিমানের, মিলল ধ্বংসাবশেষ   

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: February 28, 2019 12:06 pm|    Updated: February 28, 2019 12:06 pm

F-16 wreckage found in PoK

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১৯৬৫ যুদ্ধের প্যাটন ট্যাঙ্ক, এফ-৮৬ স্যাবার জেট থেকে শুরু করে ২০১৯-এ এফ-১৬। পাক সেনার ভাণ্ডারে মার্কিন হাতিয়ারের ঘাটতি হয়নি। তবে শুধু অস্ত্র দিয়ে যুদ্ধ জয় সম্ভব হলে প্রত্যেকবারই নাস্তানাবুদ হতে হত না পাক সেনাকে। এবারেও আমেরিকার দেওয়া এফ-১৬ যুদ্ধবিমান নিয়ে ভারতে হামলা চালানোর চেষ্টা করেছিল ওই দেশ। তবে ভারতীয় মিগের তাড়া খেয়ে পালাতে বাধ্য হয় পাকিস্তানের বীরপুঙ্গবরা। জবাবি হামলায় ভেঙে পড়ে একটি এফ-১৬। এবার সেই বিমানটির ধ্বংসাবশেষের ছবি সামনে এসেছে।

[যুদ্ধের আশঙ্কায় দেশের সমস্ত বিমানবন্দর বন্ধ করল সন্ত্রস্ত পাকিস্তান]

বুধবার সকালে নৌসেরা সেক্টরে ভারতীয় বায়ুসীমাই প্রবেশ করে তিনটি পাক এফ-১৬ যুদ্ধবিমান। ইন্ডিয়ান আর্মির ব্রিগেড হেডকোয়ার্টারে হামলা চালানোর জন্যই এসেছিল তারা। তবে ভারতীয় রাডারে ধরা পড়ে যায় এফ-১৬ গুলি। সঙ্গে সঙ্গেই উড়ান ভরে ভারতের মিগ-২১ বাইসন। মাঝ আকাশে শুরু হয় লড়াই। বেগতিক দেখে পালিয়ে যায় পাক যুদ্ধবিমানগুলি। তবে একটি এফ-১৬ জখম হয়ে পাক অধিকৃত কাশ্মিরে ভেঙে পড়ে। লড়াইয়ে একটি মিগ হারায় বায়ুসেনাও। সেটির পাইলট উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে কবজায় নিয়েছে পাক সেনা। তবে এফ-১৬ ভেঙে পড়ার কথা তারা স্বীকার করেনি। এবার বিমানটির ধ্বংসাবশেষের ছবি সামনে আসতেই বেরিয়ে পরে আসল সত্যি। ভারতীয় বিমানবাহিনীর চাপে পড়ে এরপর আর কোনও অ্যাডভেঞ্চার করার সাহস দেখায়নি পাক বায়ুসেনা। যদিও কৃষ্ণাঘাঁটি থেকে শুরু করে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর একাধিক ভারতীয় সেনার পোস্ট লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করছে পাকিস্তান। মুখে শান্তির বার্তা দিলেও সীমান্তে ক্রমাগত যুদ্ধের জিগির তুলছে সন্ত্রাসের পৃষ্ঠপোষক প্রতিবেশী দেশটি। 

এদিকে, সেই সঙ্গে বুধবার যেভাবে পাকিস্তান ভারতীয় বায়ুসীমা অতিক্রম করেছে তারও তীব্র বিরোধিতা করেছে নয়াদিল্লি। পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে, প্রয়োজনে আত্মরক্ষার জন্য যে কোনও পদক্ষেপ করতে পারে ভারত। এছাড়াও যেভাবে ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমানের ছবি এবং ভিডিও সংবাদমাধ্যমকে প্রকাশ করা হচ্ছে তারও তীব্র নিন্দা করেছে নয়াদিল্লি। পাকিস্তানকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, জেনেভা কনভেনশনের চুক্তি অনুসারে ভারতীয় জওয়ানের গায়ে একটা আঁচড়ও কাটার অধিকার নেই পাকিস্তানের। ভারতের আশা, অভিনন্দনকে সুস্থ এবং অক্ষত অবস্থায় ফিরিয়ে দেবে পাকিস্তান। আর যদি তা নয়, তাঁর ফল যে ভাল হবে না তাও বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, ১৯৬৫’র ভারত-পাক যুদ্ধে আমেরিকার কাছ থেকে অত্যাধুনিক এফ-৮৬ স্যাবার জেট ও ১০৪ স্টারফাইটার পায় পাকিস্তান। তবে ভারতীয় জিনেট যুদ্ধবিমানের হামলায় নিকেশ হয় বিমানগুলি।

                                              

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে