২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

মিলেছে করোনার দাওয়াই! রেমডিসিভির প্রয়োগে সবুজ সংকেত দিল আমেরিকা

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 2, 2020 9:34 am|    Updated: May 2, 2020 9:34 am

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। প্রচণ্ড বেকায়দায় পড়েছে আমেরিকা। গোড়ায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন আশা জাগালেও তেমন সুফল মেলেনি বলেই দাবি চিকিৎশোকদের একাংশের। এহেন সময়ে করোনা চিকিৎসায় রেমডিসিভির নামের ওষুধ প্রয়োগে সবুজ সংকেত দিল আমেরিকার ‘ফেডারেল ড্রাগ এজেন্সি’ (FDA)। 

[আরও পড়ুন: চিনের গবেষণাগারেই তৈরি করোনা! ‘প্রমাণ’ হাতে বেজিংকে বিঁধতে তৈরি ট্রাম্প]

আমেরিকায়  ‘ফেডারেল ড্রাগ এজেন্সি’র অনুমোদন ছাড়া কোনও ওষুধ প্রয়োগ করা যায় না।শুক্রবার সংস্থাটির তরফে জানানো হয় যে, করোনা আক্রান্তের চিকিৎসায় রেমডিসিভির প্রয়োগে ভাল ফল মিলেছে। এর প্রয়োগে অনেক দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছেন আক্রান্তরা। সদ্য, মার্কিন মুলুকে সরকারিভাবে চালানো একটি পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত যে রোগীদের শরীরে রেমডিসিভির প্রয়োগ করা হয়েছে অন্যদের তুলনায় সুস্থ হতে তাঁরা ৩১ শতাংশ কম সময় নিচ্ছেন। এই ফলাফল সামনে আসার পরই ওষুধটির প্রয়োগে সবুজ সংকেত দিয়েছে FDA। সংস্থাটির এই সিদ্ধান্তের কথা হোয়াইট হাউসে ঘোষণা করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

উল্লেখ্য, বুধবার অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ রেমডেসিভির (Remdesivir) মানব শরীরে নোভেল করোনা ভাইরাসের বংশবৃদ্ধি রুখতে সাহায্য করছে বলে জানান  ‘ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজ’-এর প্রধান অ্যান্টনি ফাউসি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মহামারী বিশেষজ্ঞ হিসেবে অ্যান্টনি ফাউচির নামডাকও রয়েছে। আটের দশকে ফাউচির তৎপরতাতেই এইচআইভি-র অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগের খোঁজ মিলেছিল। সেই ফাওসিই দাবি করেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড পজিটিভের শরীরে ঢালের মতো কাজ করছে রেমডেসিভির। ফাওসি জানাচ্ছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দু’লক্ষের বেশি মানুষের উপর এই অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ প্রয়োগ করা হয়েছে।  গত মাসে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ এনেছিলেন ফাউচি। তারপরই তাঁকে সরিয়ে দেওয়া নিয়ে একটি টুইটে রি-টুইট করে বসেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সব মিলিয়ে দানা বাঁধে বিতর্ক। শেষমেশ হোয়াইট হাউস জানায় নিজের পদেই থাকছেন ফাউচি।           

[আরও পড়ুন: ‘বিশ্ব স্বাস্থ্যে জারি থাকবে আপৎকালীন অবস্থা’, উদ্বেগ বাড়িয়ে ঘোষণা WHO’র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement