BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘বিশ্ব স্বাস্থ্যে জারি থাকবে আপৎকালীন অবস্থা’, উদ্বেগ বাড়িয়ে ঘোষণা WHO’র

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 2, 2020 9:24 am|    Updated: May 2, 2020 9:24 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের জেরে বিশ্বজুড়ে জারি থাকবে আপৎকালীন পরিস্থিতি। শুক্রবার ঘোষণা করলেন WHO-এর ডিরেক্টর-জেনারেল টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসুস (Tedros Adhanom Ghebreyesus)। তিনি জানিয়েছেন, জরুরি পরিস্থিতি সংক্রান্ত কমিটির সুপারিশ মেনেই আপৎকালীন পরিস্থিতি জারি রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে WHO।

গত ৩০ জানুয়ারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের জেরে বিশ্ব স্বাস্থ্যে আপৎকালীন পরিস্থিতি জারি করে WHO। তখনও চিনের বাইরে সংক্রমণ সেভাবে ছড়ায়নি। সেসময় চিনের বাইরে করোনার পরীক্ষা করা হয়েছিল ১০ হাজার জনের। সংক্রমিত হন মাত্র ৯৮ জন। কিন্তু WHO-এর সেই ঘোষণার পরও টনক নড়েনি বিশ্বের বহু দেশের। ফলস্বরূপ আপৎকালীন পরিস্থিতি ঘোষণার ৩ মাস পর বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণের সংখ্যাটা ৩২ লক্ষ ছাড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে আপৎকালীন পরিস্থিতির মেয়াদ বাড়ানো ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না।

[আরও পড়ুন: ‘চিনের জনসংযোগ সংস্থা WHO’, বেনজির তোপ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের]

WHO-এর ডিরেক্টর-জেনারেল বলেন, “করোনা ভাইরাস এখনও বিশ্ব স্বাস্থ্যে জরুরি অবস্থা। এই ভাইরাস এমন বিপদ ডেকে এনেছে যে বিশ্বের সেরা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাও সামাল দিতে পারছে না। এই পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞ কমিটির পরামর্শ মেনেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।” টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসুস এদিন নতুন উদ্বেগের কথা জানান। তিনি বলেন, “করোনা ভাইরাস আফ্রিকা এবং ল্যাটিন আমেরিকার বহু দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। এই এলাকার বহু দেশে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা অত্যন্ত দুর্বল। এশিয়া এবং ইউরোপের বহু দেশে সংক্রমণের গতি কমলেও আফ্রিকা এবং ল্যাটিন আমেরিকার এই প্রবণতা উদ্বেগের।”

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী, সংক্রমিত ১ লক্ষেরও বেশি মানুষ]

WHO প্রধান এদিন আরও একবার দাবি করেন, এই ভাইরাস মোকাবিলার জন্য যথাসময়ে বিশ্বনেতাদের সতর্ক করেছিলেন তাঁরা। আগেই তিনি জানিয়ছিলেন, বিশ্বের অধিকাংশ দেশ তাঁদের দেওয়া প্রাথমিক সতর্কবার্তা উপেক্ষা করেছে। আর সেকারণেই এই দেশগুলিকে এখন ভুগতে হচ্ছে। যে দেশগুলি এই সতর্কবার্তা মেনে চলেছে, তারা অনেক ভাল জায়গায় আছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement